kalerkantho

সোমবার । ১৬ জানুয়ারি ২০১৭ । ৩ মাঘ ১৪২৩। ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৮।


লক্ষ্মীপুরে নিখোঁজ ৬ মাদ্রাসাছাত্র চাঁদপুরে উদ্ধার, শিক্ষক আটক

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

৮ মার্চ, ২০১৬ ২৩:৩৯



লক্ষ্মীপুরে নিখোঁজ ৬ মাদ্রাসাছাত্র চাঁদপুরে উদ্ধার, শিক্ষক আটক

লক্ষ্মীপুরে নিখোঁজ সেই ছয় মাদ্রাসাছাত্রকে চাঁদপুর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় ওই শিক্ষার্থীদের নিয়ে রাতের আঁধারে পালিয়ে যাওয়া শিক্ষক হোসাইন ওরফে জসিমকে আটক করা হয়। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চাঁদপুর জেলার মতলব থানা এলাকার গোবিন্দপুরের একটি হাফিজিয়া মাদ্রাসা থেকে তাদের উদ্ধার ও শিক্ষককে আটক করা হয়।

উদ্ধার হওয়া ছাত্ররা হলো- স্থানীয় জামাল উদ্দিনের ছেলে রবিউল ইসলাম (১১), হাফিজ উল্লাহর ছেলে মনিরুল ইসলাম (১০), মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে মো. রাসেল (৮), আলতাফ হোসেনের ছেলে মো. আবদুল্লাহ (১০), কবির উদ্দিনের ছেলে সোহরাব হোসেন (৯), বাহার উদ্দিনের ছেলে মো. মুরাদ হোসেন (১২)। তারা একই গ্রামের রহমানিয়া তালিমুল কুরআন কাওমী মাদ্রাসার হেফজ খানার ছাত্র এবং দিঘলী ইউনিয়নের বাসিন্দা। আটক শিক্ষক হোসাইন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট এলাকার বাসিন্দা। তিনি লক্ষ্মীপুরের দিঘলী ইউনিয়নের শান্তিরহাট এলাকায় শ্বশুর বাড়িতে থাকতেন।

 মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, চাকরিচ্যুতির সিদ্ধান্তে ক্ষিপ্ত হয়ে গত রবিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দিঘলী ইউনিয়নের দক্ষিণ দূর্গাপুর গ্রামের রহমানিয়া তালিমুল কুরআন কাওমী মাদ্রাসা থেকে ওই শিক্ষার্থীদের নিয়ে পালিয়ে যান শিক্ষক হোসাইন ওরফে জসিম।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ থানার এসআই পুষ্প বিহার চাকমা জানান, রবিবার রাত ২টার দিকে শিক্ষক হোসাইন ৬ শিক্ষার্থীকে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মাদ্রাসার অপর শিক্ষক মনিরুল ইসলাম থানায় জিডি করেন। নিখোঁজ শিক্ষার্থীরা কুমিল্লার একটি মাদ্রাসায় রয়েছে বলে সোমবার দুপুরে অভিযুক্ত শিক্ষকের মোবাইল ফোন থেকে কল করে জানানো হয়। এরপর থেকে ওই ফোনটি বন্ধ ছিল। পরে ওই মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে চাঁদপুর জেলার মতলব থানার গোবিন্দপুর হাফিজিয়া মাদ্রাসা থেকে ছয় ছাত্রকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঘটনার সঙ্গে জড়িত শিক্ষক হোসাইন ওরফে জসিমকে আটক করা হয়।

 


মন্তব্য