kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


লক্ষ্মীপুরে ৬ শিশু শিক্ষার্থী নিয়ে মাদ্রাসাশিক্ষক উধাও

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি    

৭ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৪৯



লক্ষ্মীপুরে ৬ শিশু শিক্ষার্থী নিয়ে মাদ্রাসাশিক্ষক উধাও

লক্ষ্মীপুরে রাতের আঁধারে ছয় শিশু শিক্ষার্থী নিয়ে মো. হোসাইন ওরফে জসিম নামে এক মাদ্রাসাশিক্ষক পালিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রবিবার রাত ২টার দিকে সদর উপজেলার দিঘলী ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

চাকরিচ্যুতির সিদ্ধান্তে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই শিক্ষার্থীদের তুলে নেওয়া হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিখোঁজ শিক্ষার্থীরা একই গ্রামের রহমানিয়া তালিমুল কুরআন কওমি মাদ্রাসার হেফজখানার শিক্ষার্থী।

অভিযুক্ত শিক্ষকের বাড়ি নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট এলাকায়। তিনি লক্ষ্মীপুরের দিঘলী ইউনিয়নের শান্তিরহাট এলাকায় শ্বশুর বাড়িতে থাকতেন। প্রত্যক্ষদর্শী মাদ্রাসাশিক্ষক মনিরুল ইসলাম জানান, তাদের মাদ্রাসায় প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। এর মধ্যে ১৫ শিক্ষার্থী মাদ্রাসা হোস্টেলে থেকে পড়ালেখা করে আসছে। রবিবার রাত ২টার দিকে হোস্টেলে থাকা আট শিক্ষার্থীকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তুলে শিক্ষক হোসাইন পালিয়ে যায়।

ঘটনার সময় গেইটের শব্দ শুনে ঘুম থেকে জেগে উঠে ঘটনা প্রত্যক্ষ করেন অপর শিক্ষক মনিরুল। এ সময় তিনি চিৎকার করলে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে জড়ো হয়। এর আগেই হোসাইন আট শিক্ষার্থীকে নিয়ে পালিয়ে যান। পরে আজ সোমবার ভোরে দুই শিক্ষার্থীকে রাস্তার পাশে পেয়েছেন দাবি করে একই গ্রামের জসিম উদ্দিন নামে এক সিএনজি অটোরিকশাচালক। পরে মাদ্রাসায় নিয়ে আসলে এলাকাবাসী তাকে আটক করে।

এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার এএসআই মাসুদুর রহমান জানান, ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এলাকাবাসী এক সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালককে আটক করেছে। পরে তাকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা গয়। এ ঘটনায় জড়িত শিক্ষককে আটক ও শিক্ষার্থীদের উদ্ধারে চেষ্টা চলছে।

 


মন্তব্য