শ্রীনগরে যুবলীগের সন্ত্রাসীদের-332533 | সারাবাংলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১২ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৪ জিলহজ ১৪৩৭


শ্রীনগরে যুবলীগের সন্ত্রাসীদের হামলায় দুই সাংবাদিক আহত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ মার্চ, ২০১৬ ২১:৪১



শ্রীনগরে যুবলীগের সন্ত্রাসীদের হামলায় দুই সাংবাদিক আহত

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে ইউপি নির্বাচনের যাচাই-বাছাইয়ের দিন আজ শনিবারে যুবলীগের সন্ত্রাসীদের হামলায় দুই সাংবাদিক গুরুতর আহত হয়েছেন। এ সময় তাদের মোটরসাইকেল ও ক্যামেরা ভাঙচুর করা হয়েছে। মারাত্মক আহত ওই দুই সাংবাদিকের একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার ছিল শ্রীনগর উপজেলা ইউপি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের শেষ দিন। এদিন বিকেল ৪টার দিকে শ্রীনগর সদর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. মোখলেছুর রহমান ও সতন্ত্র প্রার্থী তাজুল ইসলাম উপজেলা নির্বাচন অফিসে উপস্থিত হয়। এ সময় আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোখলেছুর রহমানের লোকজন দাবি করে নির্বাচন অফিসের খুব কাছে তাদের আক্রমণের জন্য তাজুল ইসলামের বাড়িতে লাঠি সোটা ও হকিস্টিকসহ নানা ধরণের দেশীয় অস্ত্র মজুদ করা হয়েছে। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাজুলের বাড়িতে তল্লাশি চালায়। এ সময় ওই রকম কিছুই উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এরই ফাঁকে উপজেলা যুব লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল লস্কর ও দেউলভোগ এলাকার পারভেজের ছেলে ছাত্রলীগ নেতা প্রিন্সের নের্তৃত্বে এক দল সন্ত্রাসী তাজুলের বাড়িতে আক্রমণ চালায় ও বাড়িঘর ভাঙচুর করে। এ সময় এই হামলার ছবি তুলছিলেন দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার শ্রীনগর প্রতিনিধি অধির রাজবংশী ও দৈনিক রূপবানী পত্রিকার শ্রীনগর প্রতিনিধি মীর রাতুল। তাদেরকে ছবি তুলতে দেখে সন্ত্রাসীরা তাদের ওপর হামলা চালায় ও ব্যাপক মারধর করে। একই সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেল এবং ক্যামেরা ভাঙচুরও করা হয়। পরে মারাত্মক আহত দুই সাংবাদিককে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। কিন্তু রাতুলের অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি শ্রীনগর সার্কেল) মো. সামসুজ্জামান বাবু জানান, বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। এ ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে শ্রীনগর ওসিকে। তারা যে দলেরই হোক না কেন, তাদেরকে গ্রেপ্তার করে বিচারের মুখোমুখি দাঁড় করানো হবে।

মন্তব্য