kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রায়পুরে বসতবাড়িতে প্রতিপক্ষের হামলা, বৃদ্ধ-নারীসহ আহত ১০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

৫ মার্চ, ২০১৬ ২০:১১



রায়পুরে বসতবাড়িতে প্রতিপক্ষের হামলা, বৃদ্ধ-নারীসহ আহত ১০

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে একটি বসতবাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ সময় তাদের অতর্কিত হামলায় নারী ও বৃদ্ধসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়।

এদের মধ্যে আবদুল মালেক (৬০), খলিলুর রহমান (৩৫), আবদুল করিম (২৮), স্বপন (২৭), জায়েদা বেগম (৩৫) ও পারুলকে (৩০) রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আজ শনিবার সকালে উপজেলার উত্তর চরবংশী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, উত্তর চরবংশীর ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ছৈয়াল বাড়ি জামে মসজিদ সংলগ্ন স্থানে ৯ শতাংশ জমি নিয়ে ওই এলাকার আবদুল করিমের সাথে এয়াকুব বেপারীদের বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে ঘটনার সময় এয়াকুব বেপারী ও নুরনবী বেপারী নেতৃত্বে অর্ধশতাধিক লোক দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে করিম বেপারীর ওই জমিতে থাকা বসতবাড়িতে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তারা কুপিয়ে ও পিটিয়ে ১০ জনকে জখম করে। এ ছাড়াও তারা ভাঙচুর করে বসতঘরে লুটপাটও চালায় বলেও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের অভিযোগ।

আহত আবদুল করিম বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধে এয়াকুব বেপারীরা আমাদের ওপর বর্বর হামলা চালিয়েছে। হামলা থেকে বাদ যায়নি বৃদ্ধ ও নারীরাও। আমরা এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

হামলার বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি এয়াকুব বেপারী। তবে তিনি ওই ৯ শতাংশ ভূমি করিমদের নিকট বিক্রির বিষয়টি স্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে হাজীমারা পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) সিরাজ মিয়া বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের মামলা করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 


মন্তব্য