kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাগমারায় নিখোঁজের চার দিন পর ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী    

১ মার্চ, ২০১৬ ১৭:৩৫



বাগমারায় নিখোঁজের চার দিন পর ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

নিখোঁজের চার দিন পর রাজশাহীর বাগমারায় আনোয়ার হোসেন (৫০) নামে এক ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার বেলা দেড়টার দিকে বাগমারার শিকদারী বাজারের পাশে একটি পরিত্যক্ত ভাটার মধ্যে লাশটি দেখতে পায় স্থানীয়রা।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে। নিহত আনোয়ার হোসেন বাগমারা উপজেলার দ্বীপপুর এলাকার বাসিন্দা।
 
এদিকে, লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে আনোয়ার হোসেনের পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেনের বলে  শনাক্ত করেন। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ আব্দুল মান্নান নামের এক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। তবে আনোয়ার হোসেন নিখোঁজের আগে থেকেই আটক আব্দুল মান্নানের মেয়ে জামাই মজনু রহমান পলাতক রয়েছেন।
 
পুলিশ জানায়, গত শুক্রবার রাত থেকে আনোয়ার হোসেন নিখোঁজ হন। নিখোঁজ হওয়ার সময় তাঁর কাছে এক লাখ ২০ হাজার টাকা ছিল। এরপর আজ মঙ্গলবার স্থানীয়রা তার লাশ শিকদারী বাজারের পাশে একটি ভাটার কাছে পড়ে থাকতে দেখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধারের ব্যবস্থা করে।
 
পুলিশ আরো জানায়, মুদি দোকানদার আনোয়ার হোসেনের কাছে কম মূল্যে সিগারেট বিক্রির প্রলোভন দেখায় মজনু রহমান। এরপর শুক্রবার বিকেলে আনোয়ার এক লাখ টাকা নিয়ে মজনুর সঙ্গে বের হন। তখন থেকেই আনোয়ার হোসেন নিখোঁজ ছিলেন। তবে ওইদিন রাত ৮টার দিকে আনোয়ার হোসেনের সর্বশেষ কথা হয় তার মেয়ের সঙ্গে। এরপর থেকে তাঁর ফোনটিও বন্ধ ছিল। পরে বিষয়টি পরিবারের লোকজন বাগমারা থানায় জানান। এরপর থেকে আনোয়ার হোসেনকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ চেষ্টা চালাতে থাকে। এরই মধ্যে মজনুর শ্বশুর চা দোকানদার আব্দুল মান্নানকেও আটক করে পুলিশ।
 
বাগমারা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ লাশ উদ্ধারের কথা নিশ্চিত করে বলেন, "টাকার জন্যই তাকে খুন করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। খুন করে লাশ ফেলে রেখে চলে গেছে হত্যাকারীরা। ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত- তা খুঁজে বের করা হচ্ছে। "  

 


মন্তব্য