গোপালগঞ্জে বিদ্যুতের অতিরিক্ত-330875 | সারাবাংলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১২ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৪ জিলহজ ১৪৩৭


২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

গোপালগঞ্জে বিদ্যুতের অতিরিক্ত ভোল্টেজে দুই বসতঘর পুড়ে ছাই

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি    

১ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৪৮



গোপালগঞ্জে বিদ্যুতের অতিরিক্ত ভোল্টেজে দুই বসতঘর পুড়ে ছাই

গোপালগঞ্জে অতিরিক্ত ভোল্টেজের কারণে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে গেছে দুটি বসতঘর। এতে অন্তত ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেছেন। গতকাল সোমবার রাত ১১টার দিকে শহরের মিয়াপাড়ায় এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিস জানায়, শহরের মিয়াপাড়ার মো. দাউদ শেখের বাড়িতে হঠাৎ করে আগুন লেগে যায়। মুহূর্তের মধ্যে আগুন চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে ওই বাড়ির আসবাবপত্র ও বিভিন্ন মালামালসহ দুটি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে এলাকাবাসীর সহায়তায় প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। এ সময় পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক। এ অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটি।

তবে এলাকাবাসীর অভিযোগ ওই এলাকার পুরনো একটি ট্রান্সমিটার বদল করে নতুন একটি ট্রান্সমিটার লাগানো হয়। তাদের কাজ শেষ হওয়ার পর বিদ্যুৎ এলে অতিরিক্ত ভোল্টেজ দেখা দেয়। এতে এলাকার প্রায় শতাধিক বাড়িতে থাকা টেলিভিশন, ফ্রিজ ও বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স পণ্য নষ্ট হয়ে যায়। অতিরিক্ত ভোল্টেজের কারণে নষ্ট হয়ে যায় বলে জানিয়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দা মোহসীন উদ্দিন সিকদার। তিনি সাংবাদিকদেরকে জানান, অতিরিক্ত ভোল্টেজের বিষয়টি বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে বার বার জানালেও কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

গোপালগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন মাস্টার নিয়ামূল হূদা জানান, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। দুটি ইউনিট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে এ ঘটনায় কেউ আহত হননি। পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কালের কণ্ঠকে বলেন, "ওই ট্রান্সমিটারে তিনটি সেকশন ছিল। গতকাল বিকেলে ঝড়ো হাওয়া প্রবাহিত হওয়ায় একটি সেকশন লুজ হয়ে যায়। বিষয়টি বুঝে ওঠার আগেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।"   

 

মন্তব্য