kalerkantho


দেশের বাজারে যাত্রা শুরু করল ভিটো

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মার্চ, ২০১৯ ১১:১৭



দেশের বাজারে যাত্রা শুরু করল ভিটো

 

তেল ঠিক রাখে খাবারের মান, ঠিক তেমনি তেলকে ঠিক রাখে ভিটো। জার্মানি ভিত্তিক তেল পরিশোধন যন্ত্র ‘ভিটো’ বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে আসলো মেঘনা এক্সিকিউট হোল্ডিংস। গতকাল শনিবার রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনের মধ্যেমে দেশের বাজারে ‘ভিটো’র উদ্বোধন করে প্রতিষ্ঠানটি। 

এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মেঘনা এক্সিকিউট হোল্ডিংসের পরিচালক দেওয়ান মোহাম্মদ সাজিদ আফজাল, ভিটো সহকারি ব্যবস্থাপক দীপক কুমার মোহন্তসহ উর্ধ্বতন কর্মকতারা। 

ভিটো ব্যবহারে তেলের অপচয় ৫০ শতাংশ পর্যন্ত কমে আসে এবং এটি পরিবেশবান্ধব বলে জানান এক্সিকিউট হোল্ডিংসের পরিচালক দেওয়ান মোহাম্মদ সাজিদ আফজাল। তিনি বলেন, ভিটো কোনো রাসায়নিক বা ক্ষতিকর ব্যবস্থা ব্যবহার না করেই রান্নার তেল, চর্বি এমনকি তেলে জমা হওয়া ময়লা পরিষ্কার করে মাত্র ৪ মিনিট ৩০ সেকেন্ড সময়ে এবং কোনো সুপারভিশন বা তদারকিরও প্রয়োজন  হয় না। সমগ্র বডি স্টেইলনেস স্টিলের হওয়ায় গরম তেল ফ্রাইয়ারেও এটি চালানো যায়, ফলে শ্রম এবং সময় দুটোয় সাশ্রয় করে ভিটো। 

ভিটোর পণ্য তালিকায় রয়েছে ভ্রাম্যমাণ তেল ফিল্টার সিস্টেম, রান্নার তেল পরীক্ষার জন্য সহজ মান পরিমাপক ব্যবস্থা (ইজি কোয়ালিটি মেজারমেন্ট সিস্টেম) এবং তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ ইউনিট। রান্নার তেল ব্যবস্থাপনার জন্য সর্বোত্তম সেবা নিশ্চিত করতে ভিটোর পণ্য তালিকা প্রতিনিয়ত উন্নত ও বিস্তৃত হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। 

আয়োজকরা জানান, ভিটো বিশ্বের এক নম্বর ব্র্যান্ডের ইন-ট্যাংক ফিল্টারেশন ব্যবস্থা। আন্তর্জাতিকভাবে ভিটো বেশ কয়েকবার পুরস্কার অর্জন করেছে। বিশ্বের দেড় শতাধিক দেশে তা ব্যবহার করা হচ্ছে। 
বাংলাদেশ এবং ভারতে ভিটোর অফিসিয়াল ডিস্ট্রিবিউটর হিসেবে কাজ শুরু করেছে মেঘনা এক্সিকিউটিভ হোল্ডিংস। 

বিশ্বের বেশ কয়েকটি বিখ্যাত ব্র্যান্ড ভিটো ব্যবহার করে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে বার্গার কিং, হিল্টন, ম্যারিয়ট ও নান্দোস। এছাড়া অগণিত ছোট রেস্তোরাঁ তাদের খাবারের মান ও তেল সাশ্রয় করতে ভিটো ব্যবহার করে।



মন্তব্য