kalerkantho


চলছে ওয়ালটন ডিজিটাল ক্যাম্পেইন

তিন কোটি বেশি টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন ক্রেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক    

৩০ নভেম্বর, ২০১৭ ১৮:০৫



তিন কোটি বেশি টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন ক্রেতারা

দেশব্যাপী চলছে ওয়ালটনের ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন ক্যাম্পেইন। পণ্য কিনে রেজিস্ট্রেশন করলেই ক্রেতারা পাচ্ছেন সর্বোচ্চ এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার।

অন-লাইনে দ্রুত ও উন্নত বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করতে ওয়ালটনের এই উদ্যোগ। এই ক্যাশ ভাউচার অফার চলবে চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত।  

এই ডিজটাল ক্যাম্পেইন উপলক্ষে সারা দেশে চলছে উৎসবের আমেজ। প্রতিটি প্লাজা এবং পরিবেশক শোরুম সেজেছে নতুন সাজে। চলছে মাইকিং। বিভিন্ন স্থানে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে ক্রেতা আকর্ষণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আবার লাখ টাকা ক্যাশ ভাউচার বিজয়ীকে নিয়ে চলছে আনন্দ মিছিল, ব্যান্ড পার্টি। ওই ক্যাশ ভাউচার দিয়ে ক্রেতা নিজের বা পরিবারের জন্য যেমন পণ্য কিনছেন, তেমনই উপহারও দিচ্ছেন অন্যকে।

অক্টোবরের ২ তারিখে শুরু হওয়া এই অফারের আওতায় প্রথম দেড় মাসে ওয়ালটন পণ্য কিনে রেজিস্ট্রেশন করে ৩ কোটি ১০ লাখ টাকারও বেশি মূল্যের ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন প্রায় এক লাখ ক্রেতা।

এর মধ্যে অর্ধ-শত ক্রেতা পেয়েছেন এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার। যা দিয়ে তারা নিয়ে গেছেন ঘরভর্তি ওয়ালটন পণ্য। অনেকে আবার সাজিয়েছেন নতুন সংসার। অনেকের পূরণ হয়েছে দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন। কেউ কেউ মিটিয়েছেন প্রিয়জনের আবদার।  

ওয়ালটনের এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন ঝালকাঠি জেলার নলসিটির আমিরাবাদের বাসিন্দা জসিম উদ্দিন। তিনি জানালেন এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারে তার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণের কথা।  

তিনি বলেন, ছোটবেলা থেকেই মোটরসাইকেল পছন্দ করতাম। কিন্তু, স্ত্রী-সন্তান নিয়ে সংসার চালাতে গিয়ে সেই স্বপ্ন ছিল অধরা। অবশেষে ওয়ালটন ফ্রিজ কিনে রেজিস্ট্রেশন করতেই মিললো এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার। যা দিয়ে পূরণ হলো আমার মোটরসাইকেলের স্বপ্ন।  

জসিম উদ্দিন গত ২৭ অক্টোবর স্থানীয় এসডিএল ইলেকট্রনিক্স শোরুম থেকে ২২ হাজার ৩৫০ টাকা দিয়ে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের একটি ফ্রিজ কিনে তা মোবাইল এসএমএস এর মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করান। এর কিছুক্ষণ পরেই ফিরতি এসএমএস এর মাধ্যমে ওয়ালটনের পক্ষ থেকে এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার কথা জানানো হয় তাকে। যা দিয়ে তিনি একই শোরুম থেকে ওয়ালটনের দুটি এলইডি টিভি ও একটি মোটরসাইকেল নেন।

ওয়ালটনের ফ্রিজ, টিভি কিনে লাখ টাকার ভাউচার পেয়ে জসিম উদ্দিনের মতো মোটরসাইকেল কেনার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে নারায়নগঞ্জ জেলার মদনপুরের বাসিন্দা মো. আব্দুস সালাম, গাজীপুর জেলার কাশিমপুরের বাসিন্দা আবু সায়েম মেহেদী এবং টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার কোনাবাড়ী খোরশেলিয়া গ্রামের বাসিন্দা এসবি খোকনের।

জসিম উদ্দিনের মতো ভাগ্য বদলেছে ঝালকাঠি জেলার নলসিটি থানার তালতলার বাসিন্দা মো. সোহেল মুন্সিরও। পেশায় তিনি কাঠমিস্ত্রি। বিয়ে করেছেন গত কোরবানি ঈদের আগে। ঘরে নতুন বউ নিয়ে এলেও নতুন সংসারে ছিল না কোনো টিভি, ফ্রিজ। টাকার অভাবে সাজাতে পারছিলেন না তার নতুন সংসার। কিন্তু, ওয়ালটন টিভি কিনে এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারে বদলে যায় তার নতুন সংসারের চিত্র। এখন টিভি, ফ্রিজ, রাইস কুকার, প্রেসার কুকার, আয়রনসহ গৃহস্থালীর প্রয়োজনীয় ইলেকট্রনিক্স পণ্যে সাজিয়েছেন তার সংসার। সেই সঙ্গে বোনকেও উপহার দিয়েছেন টিভি।

টিভি কেনার আগে ওয়ালটনের লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারের অফার সম্পর্কে কিছুর জানতেন না বলে জানান মো. সোহেল মুন্সি। তিনি বলেন, নতুন বউয়ের জন্য একটি টিভি কিনতে অনেক কষ্টে কিছু টাকা জোগাড় করে চলে যাই ওয়ালটনের শো-রুমে। ২৪ ইঞ্চির একটি এলইডি টিভি কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করি। আর রেজিস্টেশনের কিছুক্ষণ পরেই আমার মোবাইলে ভেসে ওঠে লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার মেসেজ। এক লাখ টাকা জেতার খুশিতে আমার চোখে পানি চলে আসে। কি করবো তা বুঝতে পারছিলাম না। এক টিভির জায়গায় এখন ফ্রিজ, ব্লেন্ডারসহ ঘরভর্তি পণ্য পেয়ে স্ত্রীর চোখেমুখে আনন্দের যে ঝিলিক দেখেছি, তা বলে বোঝাতে পারবো না। আমার এই নতুন সংসার নতুন পণ্য দিয়ে সাজাতে পেরে ওয়ালটনের কাছে আমি অনেক কৃতজ্ঞ।

ওয়ালটনের লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারে অভাবের সংসারে ঘুরে দাড়ানোর শক্তি পেয়েছেন শরীয়তপুর সদর উপজেলার তুলাসার ইউনিয়নের দক্ষিণ গোয়ালদী গ্রামের গৃহবধু লাকি বেগম। অভাব-অনটনের সংসার তার। গত ১২ অক্টোবর শরীয়তপুর ওয়ালটন প্লাজা থেকে ২২ হাজার ৭০০ টাকা দিয়ে একটি ফ্রিজ কেনেন তিনি। পণ্য রেজিস্ট্রেশন করার পর এক লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার জেতেন তিনি। এই ক্যাশ ভাউচার দিয়ে স্বামীর জন্য ওয়ালটনের একটি মোটরসাইকেল কিনেছেন তিনি। ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালিয়েই স্বামী তার সংসার চালাতে পারবেন বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, অনলাইনে ক্রেতাদের দ্রুত ও সর্বোত্তম সেবা দিতে ডিজিটাল রেজিষ্ট্রেশন ক্যাম্পেইন চালু করেছে ওয়ালটন। এই কার্যক্রমে ক্রেতাদের উদ্বুদ্ধ করতে দেওয়া হচ্ছে নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার। ওয়ালটন প্লাজা এবং পরিবেশক শোরুম থেকে দশ হাজার টাকা বা তার চেয়ে বেশি মূল্যের পণ্য কিনে রেজিস্ট্রেশন করে ২০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাচ্ছেন ক্রেতারা। অফারটি চলবে চলতি বছরের শেষ দিন পর্যন্ত। তিন মাসে সারাদেশের ক্রেতাদের সুযোগ রয়েছে সব মিলিয়ে ২০ কোটি টাকা ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার।


মন্তব্য