kalerkantho


আশার দরকার ১০০০ মাঠকর্মী

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আশা সারা দেশে জুনিয়র লোন অফিসার পদে এক হাজারের বেশি মাঠকর্মী নিয়োগ দেবে। আবেদন করা যাবে ৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। জানাচ্ছেন এম ফরহাদ

৩১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



আশার দরকার ১০০০ মাঠকর্মী

মাঠকর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আশা। জুনিয়র লোন অফিসার পদে সারা দেশে নিয়োগ দেওয়া হবে এক হাজারের বেশি কর্মী। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি ছাপা হয়েছে ২২ জানুয়ারির ইত্তেফাক পত্রিকায়। আশার ওয়েবসাইটে (www.asa.org.bd) পাওয়া যাবে দরকারি তথ্য।

কাজের ধরন

ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম ছাড়াও স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ নানা ধরনের কার্যক্রম রয়েছে আশার। প্রয়োজনে সেসব কাজও করতে হতে পারে। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কাছে ঋণ প্রদান, প্রদেয় ঋণের টাকা উত্তোলন, হিসাব সংরক্ষণ, গ্রাহকদের সঞ্চয় গ্রহণ, গ্রাহকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সমিতি গঠনসহ ঋণসংক্রান্ত নানা ধরনের কাজ করতে হবে একজন মাঠকর্মীকে।

আবেদনের যোগ্যতা

আশার প্রধান কার্যালয়ের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট (অপারেশন) মো. ফয়জার রহমান জানান, জুনিয়র লোন অফিসার পদে আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা স্নাতক। যেকোনো দুটি পরীক্ষায় কমপক্ষে জিপিএ ২.০০ গ্রেড পয়েন্ট থাকতে হবে। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩২ বছর। নিজ জেলায় আবেদন করতে হবে। অধূমপায়ী ও সাইকেল চালনায় পারদর্শী হতে হবে। যোগদানের সময় ফেরতযোগ্য জামানত হিসেবে ১০ হাজার টাকা জমা দিতে হবে।

আবেদন যেভাবে

নিজ হাতে আবেদন লিখতে হবে প্রেসিডেন্ট, আশা বরাবর। যে জেলায় কাজ করতে ইচ্ছুক সেই জেলার বিপরীতে আশা কার্যালয়ের ঠিকানায় ডাকযোগে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে। আবেদনপত্র পাঠানোর শেষ তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি। প্রার্থীকে সাদা কাগজে জীবনবৃত্তান্ত (সচল মোবাইল নম্বর ও বৈবাহিক অবস্থা উল্লেখসহ) লিখতে হবে। আবেদনের সঙ্গে নাগরিকত্ব সনদের ফটোকপি, সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি রঙিন ছবি, সব শিক্ষাগত যোগ্যতার মূল সনদের ফটোকপি যুক্ত করতে হবে।

প্রার্থী নির্বাচন

মো. ফয়জার রহমান জানান, সব আবেদন যাচাই-বাছাই শেষে যোগ্যদের তালিকা করা হবে। আবেদন যাচাই-বাছাইয়ে দেখা হবে জেলা কোটা ও বিজ্ঞপ্তি অনুসারে চাওয়া সব কাগজ ঠিক আছে কি না। বাছাই শেষে যোগ্যদের সংক্ষিপ্ত তালিকা করে ডাকা হবে মৌখিক পরীক্ষার জন্য। মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে জেলা কার্যালয়ে।

আশার প্রধান কার্যালয়ের কমিউনিকেশন বিভাগের সহকারী পরিচালক হাবিবুর রহমান জানান, মৌখিক পরীক্ষায় একাডেমিক বিষয়ের পাশাপাশি সাধারণ জ্ঞান, সাম্প্রতিক ঘটনাবলি, সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার, ঋণ কার্যক্রমের বিভিন্ন দিক, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু, মাঠকর্মীর কাজ, নিজের ও প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে জানতে চাওয়া হতে পারে। ভাইভা বোর্ডে আরো দেখা হয় আইকিউ, কাজের আগ্রহ, যোগাযোগ দক্ষতা, অন্যকে বোঝানোর ক্ষমতা, চ্যালেঞ্জ নেওয়ার মানসিকতা, প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতাসহ নানা দিক।

ঢাকার লালবাগের এরিয়া অফিসে কর্মরত লোন অফিসার মো. আবদুস সবুর জানান, ঋণ কার্যক্রম বিষয়ে জানাশোনা থাকতে হবে। হিসাব বিষয়েও ভালো ধারণা থাকতে হবে। ইংরেজিতে ভালো করতে পারলে দেশের বাইরের শাখায়ও কাজের সুযোগ রয়েছে।

বেতন-ভাতা

জুনিয়র লোন অফিসার এক বছর শিক্ষানবিশকালে মাসিক বেতন পাবেন ১২,৬০০ টাকা। শিক্ষানবিশকাল শেষে নিয়মিত বেতন কাঠামোভুক্ত হলে ১৫,৭৫৭ টাকা পাবেন। এ ছাড়া পিএফ, সার্ভিস বেনিফিট সুবিধা, বছরে দুটি উত্সব ভাতা, প্রতিবছর ইনক্রিমেন্ট ও বীমা সুবিধাও দেওয়া হবে।

প্রয়োজনে যোগাযোগ

আবেদনসংক্রান্ত কোনো প্রয়োজনে যোগাযোগ করা যাবে আশার জেলা অফিসগুলোতে। প্রধান কার্যালয়েও জানা যাবে দরকারি তথ্য। ঠিকানা : আশা টাওয়ার, ২৩/৩, বীর-উত্তম এএনএম নূরুজ্জামান সড়ক, শ্যামলী, ঢাকা-১২০৭।


মন্তব্য