kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


১৭৫ লোকবল দরকার দিশার

শাখা ব্যবস্থাপক পদে ২৫ ও সিনিয়র ক্রেডিট অফিসার ও ক্রেডিট অফিসার পদে ১৫০ কর্মী নেবে ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ ফর সোশাল এডভান্সমেন্ট (দিশা)। আবেদনের শেষ তারিখ ২০ অক্টোবর

চাকরি আছে প্রতিবেদক   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



১৭৫ লোকবল দরকার দিশার

শাখা ব্যবস্থাপক (পিও), সিনিয়র ক্রেডিট অফিসার ও ক্রেডিট অফিসার পদে ১৭৫ কর্মী নিয়োগ দেবে বেসরকারি সংস্থা ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ ফর সোশ্যাল অ্যাডভান্সমেন্ট বা দিশা। আবেদন করা যাবে ২০ অক্টোবর বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

 

কাজের ধরন

নির্বাচিত ব্যক্তিদের ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য বিভিন্ন জেলার গ্রামাঞ্চলে যেতে হবে। দরিদ্র মহিলা, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা ও কৃষকদের সংগঠিত করে ক্ষুদ্রঋণ ও সঞ্চয় কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। নিয়োগ দেওয়া হবে কুমিল্লা, চাঁদপুর, ব্রাক্ষণবাড়িয়া, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মুন্সীগঞ্জ, নরসিংদী, ফেনী, কিশোরগঞ্জ, মানিকগঞ্জ ও লক্ষ্মীপুর জেলায়।

 

আবেদনের যোগ্যতা

শাখা ব্যবস্থাপক (পিও) পদে আবেদনের যোগ্যতা যেকোনো বিষয়ে স্নাতক অথবা স্নাতকোত্তর। থাকতে হবে ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রমে শাখা ব্যবস্থাপক হিসেবে কমপক্ষে তিন বছরের কাজের অভিজ্ঞতা। বয়স হতে হবে সর্বোচ্চ ৩৫ বছর। ক্রেডিট অফিসার পদে তিনটি গ্রেডে লোক নিয়োগ করা হবে। সিনিয়র ক্রেডিট অফিসার গ্রেড ৩-এর জন্য থাকতে হবে যেকোনো বিষয়ে মাস্টার্স ডিগ্রি। ক্রেডিট অফিসার গ্রেড-১ পদের জন্য যেকোনো বিষয়ে চার বছরমেয়াদি সম্মান বা স্নাতকোত্তর ডিগ্রি থাকতে হবে। গ্রেড-২ পদে আবেদনের যোগ্যতা স্নাতক। সব পরীক্ষায় কমপক্ষে জিপিএ ২.৫ থাকতে হবে। উচ্চ মাধ্যমিক পাস হলেই আবেদন করা যাবে ক্রেডিট অফিসার গ্রেড-৩ পদে। বয়সসীমা ২০ থেকে ৩২ বছর।

 

আবেদনের নিয়ম

সব শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদের সত্যায়িত কপি, জাতীয় পরিচয়পত্র ও জন্ম সনদের কপি, সদ্য তোলা দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও অন্যান্য কাগজপত্রসহ ডাকযোগে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে পরিচালক, মানবসম্পদ ও প্রশাসন, দিশা, ই/১০, বর্ধিত পল্লবী, মিরপুর সাড়ে ১১, ঢাকা-১২১৬ ঠিকানায়। নিজ হাতে দরখাস্ত লিখতে হবে। আবেদনপত্র ইমেইল করা যাবে hr@disabd.org ঠিকানায়। ২০ অক্টোবর বিকেল ৫টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

 

নিয়োগ প্রস্তুতি

দিশার সমন্বয়কারী (কার্যক্রম) চন্দ্র কুমার চক্রবর্তী বলেন, ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে। লিখিত পরীক্ষায় থাকবে ৭৫ আর মৌখিকে ২৫ নম্বর। লিখিত পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান ও ক্ষুদ্রঋণ সম্পর্কে প্রশ্ন হতে পারে। মৌখিক পরীক্ষায় প্রশ্ন করা হতে পারে সাধারণ জ্ঞান ও ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম সম্পর্কে।

 

প্রশিক্ষণ, বেতন ও সুযোগ-সুবিধা

সব পদের প্রার্থীকে প্রথমে এক মাসের প্রশিক্ষণ নিতে হবে। প্রশিক্ষণে উত্তীর্ণদের শিক্ষানবিশ হিসেবে ছয় মাস কাজ করতে হবে। সিনিয়র ক্রেডিট অফিসাররা প্রশিক্ষণকালে পাবেন ৬৫০০ টাকা। শিক্ষানবিশকালে মাসিক ১৪০০০ টাকা বেতন দেওয়া হবে। সফলভাবে শিক্ষানবিশকাল শেষ করতে পারলে মাসিক বেতন হবে ১৬০৫০ টাকা। ক্রেডিট অফিসার গ্রেড-১ পদের প্রশিক্ষণকালে ৬০০০ টাকা, শিক্ষানবিশকালে ১৩০০০ ও শিক্ষানবিশ শেষে মাসিক ১৪৭৫০ টাকা বেতন পাবে। ক্রেডিট অফিসার গ্রেড-২ পদে প্রশিক্ষণকালে ৫০০০, শিক্ষানবিশকালে ১২৫০০ ও শিক্ষানবিশ শেষে মাসিক বেতন হবে ১৪২০০ টাকা।

ক্রেডিট অফিসার গ্রেড-৩ পদে প্রশিক্ষণকালে ৪০০০ টাকা, শিক্ষানবিশকালে ১২০০০ ও শিক্ষানবিশ শেষে মাসিক ১৩৬২৫ বেতন পাবেন। স্বল্পমূল্যে বাসস্থান, গ্র্যাচুইটি, বীমা, চিকিৎসা সহায়তা ও অন্যান্য সুবিধা পাবে একজন কর্মী। চাকরিতে যোগ দেওয়ার সময় শাখা ব্যবস্থাপক পদে ১০ হাজার টাকা এবং ক্রেডিট অফিসারদের সাত হাজার টাকা জামানত (ফেরতযোগ্য) দিতে হবে।

 

যোগাযোগ

পরিচালক, মানবসম্পদ ও প্রশাসন, দিশা, ই/১০, বর্ধিত পল্লবী, মিরপুর সাড়ে ১১, ঢাকা-১২১৬।

ওয়েব : www.disabd.org


মন্তব্য