kalerkantho


দেশ পরিচিতি

৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



দেশ পরিচিতি

শাদ

মধ্য আফ্রিকার ভূমিবেষ্টিত দেশ শাদ। এর উত্তরে লিবিয়া, পূর্বে সুদান, দক্ষিণে মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র, দক্ষিণ-পশ্চিমে ক্যামেরুন ও নাইজেরিয়া এবং পশ্চিমে নাইজার।

আয়তন অনুসারে এটি আফ্রিকার পঞ্চম বৃহত্তম দেশ। শাদ ভূমিবৈচিত্র্যে অনন্য—এর উত্তরে সুবিশাল মরুভূমি, মধ্যাঞ্চল অনুর্বর, দক্ষিণাঞ্চল বেশ উর্বর। শাদ হ্রদের নামেই দেশটির নাম। দেশের সর্ববৃহৎ এই জলাভূমি আফ্রিকায়ও দ্বিতীয় বৃহত্তম। দুই শতাধিক বিচিত্র জাতিগোষ্ঠীর বাস এই দেশটিতে।

স্বর্ণ ও ইউরেনিয়ামসমৃদ্ধ এই দেশটি মাত্র এক দশক আগে থেকে তেল রপ্তানি শুরু করেছে। স্বাধীনতার পর থেকেই অস্থিতিশীলতা আর সহিংসতার কারণে দেশটি তীব্র সংকটের মধ্যে ছিল। মূলত আরব মুসলিম ও খ্রিস্টানদের মধ্যে উত্তেজনার কারণেই এই সংঘাত।

সহিংসতার কারণেই দেশটির অবকাঠামো দুর্বল। দারিদ্র্য, স্বাস্থ্য ও সামাজিক সংকটও প্রবল। ১৯৯০ সালে ক্ষমতায় আসেন প্রেসিডেন্ট ইদ্রিস দেবি। ক্ষমতায় আসার ছয় বছর পর তিনি দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করেন।

তবে সমালোচকরা মনে করেন, দেশে প্রকৃত অর্থে গণতন্ত্র নেই। এখনো তিনিই দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন

করছেন।

একনজরে

পুরো নাম   : শাদ প্রজাতন্ত্র

রাজধানী    : আনজামেনা

ভাষা : আরবি, ফরাসি

সরকার পদ্ধতি : রাষ্ট্রপতিশাসিত প্রজাতন্ত্র

প্রেসিডেন্ট    : ইদ্রিস দেবি

প্রধানমন্ত্রী    : আলবার্ট ফাহিমি পাডেক

আইনসভা    : জাতীয় পরিষদ

স্বাধীনতা লাভ : ১১ আগস্ট ১৯৬০ (ফ্রান্স থেকে)

আয়তন      : ১২ লাখ ৮৪ হাজার

       বর্গকিলোমিটার

জনসংখ্যা    : এক কোটি ৩৬ লাখ ৭০ হাজার

       ৮৪ জন

ঘনত্ব  : প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৮.৬ জন

জিডিপি     : মোট ৩১.৪৪৮ বিলিয়ন ডলার, মাথাপিছু দুই হাজার ৭৮৭ ডলার

মুদ্রা : সেন্ট্রাল আফ্রিকান ফ্রাঙ্ক

জাতিসংঘে যোগদান : ২০ সেপ্টেম্বর ১৯৬০।


মন্তব্য