kalerkantho


এক মহৎ মানুষ

৪ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



এক মহৎ মানুষ

কাজী আজহার আলী পূর্ব পাকিস্তান প্রশাসনের মেধাবী, বিশিষ্ট কর্মকর্তাই ছিলেন না, খ্যাতিমান শিক্ষা উদ্যোক্তাও ছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগে প্রথম শ্রেণিতে বিএস, প্রথম শ্রেণিতে এমএস করে কেমব্রিজ থেকে ডিপ্লোমা ও হার্ভার্ড থেকে মাস্টার্স করেছেন। যশোরের এমএম (মাইকেল মধুসূদন) ও সিলেটের এমসি (মুরারী চাঁদ) কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগে অধ্যাপনা করেছেন। এরপর প্রশাসনে যোগ দেন। তবে এককালের তুখোড় ছাত্র, খ্যাতনামা শিক্ষকটি শিক্ষার প্রতি সব সময়ই অনুরাগী ছিলেন। তিনি ৩৫ বছর ‘মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ’-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ছিলেন। শিক্ষার প্রতি ভালোবাসা থেকে তিনি চাকরি জীবনে ‘রাজবাড়ী কলেজ’, ‘রংপুর কলেজ’, ‘রংপুর রোকেয়া কলেজ’, ‘লালকুঠি গার্লস হাই স্কুল’, ‘রংপুর স্টেডিয়াম’, গাইবান্ধায় ‘বোনারপাড়া কাজী আজহার আলী স্কুল’, ‘খুলনায় পাবলিক কলেজ’, বাগেরহাটের ফকিরহাটে ‘কাজী আজহার আলী কলেজ’, ‘খোদেজা খাতুন বালিকা বিদ্যালয়’ ও ‘কাজী আশরাফউদ্দিন স্কুল’ প্রতিষ্ঠা করেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব পদে চাকরি করার সময় তাঁর উদ্যোগে ও প্রচেষ্টায় ‘খুলনা ইউনিভার্সিটি’ প্রতিষ্ঠিত হয়। তিনি ‘বাংলাদেশ মেডিক্যাল কলেজ’র অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং ‘বাংলাদেশ হার্ট ফাউন্ডেশন’র প্রতিষ্ঠাতা সহসভাপতি ছিলেন। ২০০১ সালের ২৩ অক্টোবর ‘বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি (বিইউ)’ প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি এর প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চ্যান্সেলরও ছিলেন।



মন্তব্য