kalerkantho


ক্যাম্পাস সংবাদ

রেসিডেনসিয়ালে বিজ্ঞান উৎসব

জুবায়ের আহম্মেদ   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রেসিডেনসিয়ালে বিজ্ঞান উৎসব

ধানমণ্ডি গভ. বয়েজ হাই স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী আহমেদ আলী জিসান এসেছে ‘পরিবেশ বাঁচাতে লাইকেন’ নামের প্রজেক্ট নিয়ে। প্রজেক্ট সম্পর্কে জানতে চাইতেই বলল, ‘শৈবাল ও ছত্রাক মিলিতভাবে সম্পূর্ণ পৃথক একজাতীয় উদ্ভিদ সৃষ্টি করে, যাকে বলা হয় লাইকেন। পরিবেশ রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এটি।’ ফারদিন আল রুবাইয়াত এসেছিল কচুরিপানা দিয়ে পানিকে আর্সেনিকমুক্ত করার প্রজেক্ট নিয়ে। ভিকারুননিসা নূন স্কুলের শিক্ষার্থী প্রত্যাশা, ফাহমিদা, সামিহা অংশ নেয় ‘নোংরা পানি বিশুদ্ধকরণ এবং বিদ্যুৎ উৎপাদন’ প্রজেক্ট নিয়ে। মাঠের অপর একটি অংশে দেখা গেল রকমারি দেয়াল পত্রিকার প্রদর্শনী চলছে। কলেজের অপর একটি ভবনে ফটোগ্রাফি প্রদশর্নী হয়েছে। সবাই ঘুরে ঘুরে ছবি দেখছে আবার কারো কারো ছবির বেশ প্রশংসাও করছে।

৮-১০ ফেব্রুয়ারি ডিআরএমসি সায়েন্স ক্লাবের আয়োজনে ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজে অনুষ্ঠিত হয় ১১তম জাতীয় বিজ্ঞান উৎসব-২০১৮। সর্বমোট ২৮টি প্রতিযোগিতায় জুনিয়র, সেকেন্ডারি, সিনিয়র ও ইউনিভার্সিটি—এই চারটি বিভাগে অংশগ্রহণের সুযোগ পায় শিক্ষার্থীরা। প্রজেক্ট ডিসপ্লে, কুইজ, ওয়াল ম্যাগাজিন, ফটোগ্রাফি, বিভিন্ন অলিম্পিয়াড, আইকিউ টেস্টসহ আরো কত্ত কী। সঙ্গে এবারের ইভেন্টের নতুন সংযোজন ছিল গেমিং কম্পিটিশন আর রোবটিকস কম্পিটিশন। প্রতিটি ইভেন্টে তিনটি করে পুরস্কার দেওয়া হয়। পুরস্কার হিসেবে পায় ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট। ডিআরএমসি সায়েন্স ক্লাবের সভাপতি শাহরিয়ার আলম বলেন, ‘এ ধরনের বড় উৎসব আয়োজন করতে পেরে ভালো লেগেছে। আর অনেক বেশি প্রতিযোগীর অংশগ্রহণ উৎসবকে প্রাণবন্ত করেছে।’  


মন্তব্য