kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ছবিতে আঁকাতে ৫ দিন

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে হয়ে গেল আন্তবিশ্ববিদ্যালয় আলোকচিত্র ও শিল্পকর্ম প্রদর্শনী। সেটি নিয়ে লিখেছেন আরাফাত কবীর

২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ছবিতে আঁকাতে ৫ দিন

লাইফ বিভাগে প্রথম পুরস্কার পাওয়া এই ছবিটি তুলেছেন নাঈম আহমেদ

৩৮ জন ফটোগ্রাফারের তোলা ৭০টি ছবি এবং ৯ জন শিল্পীর ২০টি চিত্রকর্ম নিয়ে ৭ ফেব্রুয়ারি শুরু হয় ‘ইন্ট্রা এনএসইউ আর্ট অ্যান্ড ফটোগ্রাফি কম্পিটিশন অ্যান্ড এক্সিবিশন’। আয়োজক নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি আর্ট অ্যান্ড ফটোগ্রাফিক ক্লাব।

ক্যাম্পাসের ভেতরে এই প্রদর্শনী ঘুরে দেখেছেন অনেক ছাত্রছাত্রী। তাদেরই একজন ফার্মাসি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের মালিহা প্রমি বললেন, ‘আমার নিজের আঁকা ছবিও এখানে আছে। অন্যরা সেটি দেখছে, ভালো লাগছে। তাদের তোলা ছবি, আঁকা চিত্রকর্ম দেখে নানা কিছু শিখতে পারছি। ’ এই আয়োজন নিয়ে আর্ট অ্যান্ড ফটোগ্রাফি ক্লাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট নকিব চৌধুরী বলেন, ‘আমরা এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলেমেয়েদের সৃজনশীলতার কথা সবাইকে জানাতে চাই, তাদের উৎসাহ দিতে চাই। ’ এবারের আয়োজন নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি জানান, ‘এবার অনেক বেশি সাড়া পেয়েছি। ছয়টি বিভাগে ১০৭ জন আলোকচিত্রীর তোলা এক হাজার ২২টি ছবি জমা পড়ে। বিভাগগুলো হলো পোর্ট্রেট, আর্কিটেকচার, কনসেপচ্যুয়াল, লাইফ ও মোবাইল ফটোগ্রাফি। দিনরাত খেটে বাছাই করে ৩৮ জন ফটোগ্রাফারের ৭৫টি ছবি প্রদর্শনীর জন্য মনোনীত করা হয়। আর ১১ জন চিত্রশিল্পী ৩৫টি শিল্পকর্ম জমা  দেওয়ার পর বিচারকরা ৯ জন শিল্পীর ২০টি চিত্রকর্ম প্রদর্শনীর জন্য মনোনীত করেন। ’

নকিব নিজেও ছবি তোলেন। তাঁর তোলা দুটি ছবি পুরস্কার পেয়েছে। পোর্ট্রেট বিভাগে প্রথম এবং মোবাইল ক্যামেরায় তোলা ছবি বিভাগে তিনি দ্বিতীয় হয়েছেন। নিজের ছবির বিষয়ে নকিব বলেন, ‘একেবারেই সাধারণ বিষয়বস্তু ক্যামেরায় বন্দি করতে ভালো লাগে। ’ প্রদর্শনীর ছবিগুলো নিয়ে বলতে গিয়ে ক্লাবের সদস্য তানজিল মাহমুদ বলেন, ‘আমরা চিত্রশিল্পী ও আলোকচিত্রীদের মিলনমেলা করতে চেয়েছি। ’ আয়োজনের প্রিন্ট মিডিয়া পার্টনার ছিল কালের কণ্ঠ।


মন্তব্য