kalerkantho


জবিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণে ইনডোর গেমসের উদ্বোধন

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:৪৬



জবিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণে ইনডোর গেমসের উদ্বোধন

বাংলাদেশের ২৫টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৪৬২ জন শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে তিন দিনব্যাপী 'আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় ইনডোর গেমস প্রতিযোগীতার আয়োজন করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। প্রতিযোগীতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি গতকাল বৃহস্পতিবার ২টা ৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ভবন চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন এবং বেলুন উত্তোলন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার এমপি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, 'আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে বাংলাদেশের পরিচিত অনেকটাই ক্রিকেট খেলার সফলতার মাধ্যমে। বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার খেলাধুলার প্রতি প্রবল ভালোবাসা রয়েছে। যার ফলে আমরা ক্রমাগত এর সুফল পাচ্ছি। প্রথমবারের মতো জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সর্বোচ্চসংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণে আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় ইনডোর প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে, এদিক দিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সৌভাগ্যবান।' এ সময় তিনি আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় ইনডোর গেমস প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী ঘোষণা করেন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, 'এই বারের ইনডোরে গেমস প্রতিযোগীতায় সর্বাধিকসংখ্যক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করছে। এ ধরনের একটি প্রতিযোগীতা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজন করতে পেরে গর্বিত। উচ্চশিক্ষা সঙ্গে সঙ্গে খেলাধুলা মানোন্নয়ন করাও জরুরি। অবকাঠামোগত সমস্যার থাকা স্বত্ত্বেও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখছে। ভালো পারফম্যান্সের মাধ্যমে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জাতীয় পর্যায়ে অবদান রাখতে পারে।' প্রয়োজনীয় সহযোগীতা পেলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আন্তর্জাতিক পর্যায়ের ক্রীড়া প্রতিযোগীতার আয়োজন করতে সক্ষম বলে উপাচার্য এ সময় মন্তব্য করেন।

আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় ইনডোর গেমস প্রতিযোগিতা ২০১৭-১৮ এর সাংগঠনিক কমিটির আহ্বায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক মো. সেলিম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি এবং পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. হারুনর রশীদ এবং বাংলাদেশ টেবিল টেনিস ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক খোন্দকার হাসান মুনীর সুমন। এ ছাড়া শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়া কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. আলী নূর। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রভাষক মো. মিনহাজ উদ্দীন-সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মো. তরিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদিন রাসেল প্রমুখ।

এ সময় প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়াবিদ (শিক্ষার্থী), অফিসিয়াল কর্মকর্তাসহ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগের চেয়ারম্যান, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় ইনডোর গেমস প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের ২৫টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৪৬২ জন শিক্ষার্থীরা (টেবিল টেনিস ছাত্র-৭৪ জন, টেবিল টেনিস ছাত্রী- ৫৬ জন, ব্যাডমিন্টন ছাত্র-৯১ জন, ব্যাডমিন্টন ছাত্রী- ৬০জন, দাবা- ৮৫ জন, ক্যারাম ছাত্র-৫৩ জন, ক্যারাম ছাত্রী-৪৩ জন)  অংশগ্রহণ করবেন। ইনডোর গেমস প্রতিযোগিতায় ৪টি গেমস ৭টি ক্যাটাগরিতে [ব্যাডমিন্টন (ছাত্র-ছাত্রী), টেবিল টেনিস (ছাত্র-ছাত্রী), দাবা এবং ক্যারাম (ছাত্র-ছাত্রী)] তিনদিনব্যাপী (২৫,  ২৬ ও ২৭ জানুয়ারি) ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় ইনডোর গেমস প্রতিযোগীতায় সহযোগী হিসেবে রয়েছে বাংলাদেশ টেবিল টেনিস ফেডারেশন, বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন ফেডারেশন, বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন, বাংলাদেশ ক্যারাম ফেডারেশন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশন এবং বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ।



মন্তব্য