kalerkantho


মিরসরাই অর্থনৈতিক জোনে উৎপাদন শুরু হচ্ছে ডিসেম্বরে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ জানুয়ারি, ২০১৯ ১০:৫৫



মিরসরাই অর্থনৈতিক জোনে উৎপাদন শুরু হচ্ছে ডিসেম্বরে

ছবি অনলাইন

মিরসরাই অর্থনৈতিক জোনে আগামী ডিসেম্বর মাসে প্রথম শিল্প হিসাবে আরমান হক ডেনিম লিমিটেডে উৎপাদন শুরু হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই এই কারখানাটির নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।

আরমান হক ডেনিম লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসএনআর তৌফিক গণমাধ্যমকে জানান, আমরা আগামী ডিসেম্বরে কারখানায় উৎপাদন কাজ শুরু করার পরিকল্পনা করেছি।

অর্থনৈতিক জোনে প্রথম দফা বরাদ্দ পাওয়া প্লটগুলোর মধ্যে আরমান হক ডেনিম লিমিটেডের এ প্লটটি একটি।

পরিকল্পনা অনুযায়ী সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী মার্চে কারখানার নির্মাণ কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন এসএনআর তৌফিক।
তিনি বলেন, কারখানায় আন্তর্জাতিক মানের গ্রীন গ্লোবাল কমপোজিট ডেনিম উৎপাদন হবে। বছরে ১০.৮ মিলিয়ন মিটার ডেনিম কাপড় তৈরি হবে। তিনি বলেন, ১০ একর জমির উপর কারখানাটি তৈরি হচ্ছে। ইউরোপীয় এবং যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ডেনিম কাপড়ের বাড়তি চাহিদা মেটাতে তিনশত কোটি টাকা বিনিয়োগ করে এই কারখানাটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের ডেনিমের চাহিদা বছরে ৯ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের ৭০ ভাগ লোক ডেনিম কাপড়ের তৈরি পোশাক পরিধান করে। বর্তমানে একমাত্র বাংলাদেশেই ৩০টি ডেনিম মিল রয়েছে। প্রায় ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের কাপড় রফতানি হয়। ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোতে ডেনিম কাপড়ের তৈরি পোশাক রফতানির ক্ষেত্রে বাংলাদেশ চীনকেও ছাড়িয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ডেনিম পোশাক রফতানির ক্ষেত্রে চীন ও মেক্সিকোর পরেই বর্তমানে বাংলাদেশের অবস্থান।
 
ঢাকা চট্রগ্রাম শিল্প করিডরের পাশাপাশি দেশেরে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জোনগুলোর মধ্যে একটি হতে যাচ্ছে মিরসরাই অর্থনৈতিক জোন। দেশী ও বিদেশী বিনিয়োগকারীদের উৎসাহিত করতে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক জোন কর্তৃপক্ষ মিরসরাই, ফেনি ও সীতাকুন্ড অর্থনৈতিক জোনের পাশে বঙ্গবন্ধু শিল্প নগরী (বিএসএমএসএন) নামে একটি শিল্প নগরি গড়ে তুলছে। এই জোনে বিপুল সংখ্যক তৈরি পোশাক শিল্প করখানা স্থাপিত হবে। এখানে আর্ন্তজাতিক মানের ব্যবসা ও শিল্প নগরী স্থাপনের অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টি হবে। সূত্র : বাসস।



মন্তব্য