kalerkantho


খাশোগি হত্যার প্রভাব: তেলের দাম ৮০ ডলার ছাড়াল

বাণিজ্য ডেস্ক   

২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১২:৩১



খাশোগি হত্যার প্রভাব: তেলের দাম ৮০ ডলার ছাড়াল

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার ছায়া পড়েছে জ্বালানি তেলের আন্তর্জাতিক বাজারে। একদিকে ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার খড়্গ অন্যদিকে খাশোগি ইস্যুতে পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে সৌদি আরবের কূটনৈতিক টানাপড়েন। এতে বিশ্ববাজারে বেড়েছে জ্বালানি তেলের দাম। গতকাল সোমবার তেলের দাম বেড়ে ৮০ ডলার ছাড়িয়েছে। বিশ্বে তেলের সবচেয়ে বড় রপ্তানিকারক দেশ সৌদি আরব।

বাজারসংশ্লিষ্টরা বলছেন, নভেম্বরের শুরুতেই ইরানের তেল খাতের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিষেধাজ্ঞা পড়ছে। এতে আন্তর্জাতিক বাজারে ইরানের তেল রপ্তানি ব্যাপকভাবে কমে যাবে, যা এরই মধ্যে হ্রাস পেয়েছে। এ সময়ে তেলের ঘাটতি পুষিয়ে নিতে সৌদি আরবের উৎপাদন বাড়ানোর কথা। কিন্তু জামাল খাশোগি হত্যার দায় স্বীকার করায় সৌদি আরবের ওপর পশ্চিমারা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে এমন আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের অনেক আইন প্রণেতা নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি জানিয়েছেন।

এর জবাবে সৌদি আরবও তেল উৎপাদন বন্ধ করে দিতে পারে, যা জ্বালানি তেলের বাজারে বড় ধরনের সংকট তৈরি করবে। মূলত এসব আশঙ্কাতেই বিশ্ববাজারে বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম। যদিও সৌদি জ্বালানিমন্ত্রী খালিদ আল ফালিহ বলেছেন, সৌদি আরবের কোনো ইচ্ছা নেই ১৯৭৩ সালের মতো পশ্চিমা দেশগুলোর ওপর তেল নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার। বরং ঘাটতি মেটাতে তেল উৎপাদনের পরিকল্পনা রয়েছে। তবে সৌদি আরব জানিয়েছে, যেকোনো নিষেধাজ্ঞার যথাযথ জবাব তারা দেবে।

ফালিহ বলেন, সৌদি আরব শিগগিরই তেলের উৎপাদন দৈনিক এক কোটি ১০ লাখ ব্যারেলে নিয়ে যাবে। বর্তমানে দেশটি দৈনিক এক কোটি ব্যারেল তেল উৎপাদন করে। তিনি জানান, দৈনিক এক কোটি ২০ লাখ ব্যারেল তেল উৎপাদনের সক্ষমতা রিয়াদের রয়েছে। এর পাশাপাশি সংযুক্ত আরব আমিরাত আরো দুই লাখ ব্যারেল তেল উৎপাদন বাড়াবে।

গতকাল সোমবার বিশ্ববাজারে ব্যাঞ্চমার্ক ব্রেন্ট অশোধিত তেলের দাম ৪৫ সেন্ট বেড়ে হয়েছে ব্যারেলপ্রতি ৮০.২৩ ডলার। এর পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের অশোধিত তেলের দাম ৩১ সেন্ট বেড়ে ব্যারেলপ্রতি হয় ৬৯.৪৩ ডলার।

আগামী ৪ নভেম্বর ইরানের তেল খাতে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হচ্ছে। বিশ্লেষকরা মনে করেন এর ফলে দৈনিক ১৫ লাখ ব্যারেল তেল উৎপাদন কমে যাবে। রয়টার্স। 



মন্তব্য