kalerkantho


বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ১১:৩২



বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি

ছবি অনলাইন

তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেকের উত্পাদন কমানোর সিদ্ধান্ত, বিশ্ববাজারে চাহিদা বৃদ্ধি এবং ইরানে নতুন করে যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে—এমন আশঙ্কাতে বিশ্ববাজারে বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম।

গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে ব্যারেলপ্রতি ৭৫ ডলারে উঠেছে, যা ২০১৪ সালের নভেম্বরের পর থেকে সর্বোচ্চ।

কয়েক বছর জ্বালানি তেলের দাম ব্যাপকভাবে পড়ে যাওয়ায় ২০১৬ সালে অর্গানাইজেশন অব দ্য পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজভুক্ত (ওপেক) দেশগুলো এবং রাশিয়া তেল উত্পাদন কমাতে একটি চুক্তির ব্যাপারে আলোচনা করতে থাকে। মূলত তখন থেকে দাম বাড়তে থাকে। পরবর্তী সময়ে দীর্ঘ আলোচনা শেষে ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে রপ্তানিকারক দেশগুলো একটি চুক্তিতে উপনীত হয়। যাতে সিদ্ধান্ত হয়, বিশ্ববাজারে তেলের দাম বাড়ানোর লক্ষ্যে উত্পাদন কমানো হবে। ওই চুক্তির পর থেকে তেলের দাম আর নিম্নমুখী হয়নি।

গতকাল অশোধিত ব্রেন্ট তেলের দাম ৩৭ সেন্ট বেড়ে ব্যারেলপ্রতি হয় ৭৫.২৭ ডলার, যা ২০১৪ সালের ২৭ নভেম্বরের পর থেকে সর্বোচ্চ। এর আগে টানা ছয় দিনই ব্রেন্ট তেলের দাম বেড়েছে। এর পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের অশোধিত তেলের দাম ৫১ সেন্ট বেড়ে ব্যারেলপ্রতি হয় ৬৯.১৫ ডলার, যা ২০১৪ সালের ২৮ নভেম্বরের পর থেকে সর্বোচ্চ।  

বাজারসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, আগামী ১২ মের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র সিদ্ধান্ত নেবে তারা ইরানের সঙ্গে করা পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা দেবে কি না। তা করা হলে তেলের তৃতীয়বৃহৎ উত্পাদনকারী দেশটি আবারও বিশ্ববাজার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে, যা জ্বালানি তেলের বিশ্ববাজারে নতুন করে চাপ তৈরি করবে।


মন্তব্য