kalerkantho


বসুন্ধরা সিমেন্ট ও এফএমএনই চুক্তি স্বাক্ষর

দেশের প্রথম নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্লান্টে ব্যবহার হবে বসুন্ধরা সিমেন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:২০



দেশের প্রথম নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্লান্টে ব্যবহার হবে বসুন্ধরা সিমেন্ট

ছবি : কালের কণ্ঠ

পদ্মা সেতুর মতো দেশের প্রধান প্রধান বৃহৎ অবকাঠামোর মতো প্রথম নিউক্লিয়ার বিদুৎ প্রকল্পেও ব্যবহার হবে দেশের শীর্ষ স্থানীয় বসুন্ধরা সিমেন্ট। এই লক্ষ্যে বসুন্ধরা সিমেন্ট ও ফ্রেসিনেট মিনার্ড নরদার্ন ইমিরেটস (এফএমএনই) এর মধ্যে একটি সরবরাহ চুক্তি সই হয়। 

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর লা মেরেডিয়ান হোটেলে এ চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়। নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে সই করেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর এবং এফএমএনই’র আঞ্চলিক পরিচালক অলিভার বিচেট। 

অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠান দু’টির কর্মকর্তারা জানান, এই চুক্তির ফলে বসুন্ধরা সিমেন্ট নিউক্লিয়ার বিদুৎ প্রকল্পে প্রায় তিন লাখ টনের বেশি সিমেন্ট সরবরাহ করবে বসুন্ধরা সিমেন্ট। 

বসুন্ধরা গ্রুপের উর্ধ্বতন কর্মকতারা জানান, অত্যাধুনিক ভিআরএম পদ্ধতিতে তৈরি দেশের বৃহৎ সিমেন্ট উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা সিমেন্ট। আমাদের সিমেন্টের গুণগত মান, অত্যাধুনিক উত্পদান পদ্ধতি এবং দেশি-বিদেশি প্রতিসমানের আস্থার রয়েছে।  বাজারের সুনাম ও আমাদের সক্ষমতার কথা বিবেচনা করে পদ্মা সেতু, বাংলাদেশের প্রথম এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্প এবং রুপপুর নিউক্লিয়ার বিদুৎ প্রকল্পে বসুন্ধরা সিমেন্ট ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এফএমএনই। 
 
চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ছিলেন উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক এফএমএনই ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইরিল প্লোমথিউক্স, প্রকল্প ব্যবস্থাপক (স্টাটাআপ) পাসকেল মার্টিন ডাগুইট, প্রকল্প ব্যবস্থাপক কিরিল টুসিন, কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, ডেইলি সান সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী প্রমুখ।

এছাড়া বসুন্ধরা গ্রুপের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল মাহবুব হায়দার, ময়নাল হোসেন চৌধুরী, জ্যেষ্ঠ উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক বেলায়েত হোসেন, সিএফও মো. তোফায়েল হোসেন, সিমেন্ট খাতের বিক্রয় বিভাগের প্রধান খন্দকার কিংশুক হোসেন মো. মাহমুদুল হাসান, উপ মহাব্যবস্থাপক কর্পোরেট সেল্স সরোজ কুমার বড়ুয়া, উপ মহাব্যবস্থাপক (টেকনিক্যাল সার্পোট) আহসানুল হাবিব, ব্যবস্থাপক (কর্পোরেট সেল্স) রুবেল হোসেন এবং বসুন্ধরা গ্রুপের অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য