kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ভুটানে সার্ক বাণিজ্য মেলা-২০১৬

উচ্চমানের ওয়ালটন পণ্য নজর কেড়েছে ক্রেতাদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৫০



উচ্চমানের ওয়ালটন পণ্য নজর কেড়েছে ক্রেতাদের

ভুটানের রাজধানী থিম্পুতে অনুষ্ঠিত এয়োদশ সার্ক বাণিজ্য মেলায় ক্রেতা-দর্শণার্থীদের দৃষ্টি কেড়েছে ওয়ালটন। ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত উচ্চমানের আকর্ষণীয় ওয়ালটন পণ্য ক্রয়ে আগ্রহ দেখিয়েছেন সার্ক অঞ্চলের ব্যবসায়ীরা।

অনেকেই ওয়ালটন পণ্য ক্রয় এবং কারখানা পরিদর্শনে বাংলাদেশে আসছেন শিগগীরই। এর মাধ্যমে ভুটানে ওয়ালটন পণ্যের বাজার সম্প্রসারণ আরো সহজ হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ সেপ্টেম্বর ভুটানের থিম্পুতে চাংগলিমিথাং স্টেডিয়ামে শুরু হয় ছয় দিনের ১৩তম সার্ক বাণিজ্য মেলা। ভুটান দ্বিতীয়বারের মতো এই মেলার আয়োজক হলো। এতে সার্কভুক্ত দেশগুলোর ১৭৭টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। এর মধ্যে ছিলো বাংলাদেশের ১১টি, ভারতের ৫২টি, নেপালের ৮২টি এবং ভুটানের ৩৭টি প্রতিষ্ঠান। এবারের মেলার আয়োজন করে 'ভুটান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি -বিসিসিআই'।

মেলায় প্রদর্শিত হয় বাংলাদেশের শীর্ষ ব্র্যান্ড ওয়ালটনের গ্লাস ডোর ও ফ্রস্ট ফ্রিজ, স্মার্ট টেলিভিশন, ইন্ডাকশন কুকার, ব্লেন্ডার, এলইডি বাল্ব, প্যানেল লাইট এবং ইলেকট্রিক সুইচ-সকেট ইত্যাদি। এই মেলার মাধ্যমে ভুটানে ওয়ালটন পণ্যের বিশাল বাজার তৈরির সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করছে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ।

ভুটানে ওয়ালটনের অন্যতম পরিবেশক স্টেট ট্রেডিং করপোরেশন অব ভুটান লিমিটেড এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে মেলায় অংশ নেয় ওয়ালটন। মেলায় একমাত্র ওয়ালটনই পূর্ণাঙ্গ ইলেকট্রনিক্স পণ্য উৎপাদনকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে পণ্য প্রদর্শণ করে। যার ফলে প্রথম দিন থেকেই ওয়ালটনের স্টলে ক্রেতা-দর্শণার্থীদের ব্যাপক সমাগম ছিল।

ওয়ালটন ব্র্যান্ডের বিশাল প্রোডাক্ট লাইন, পণ্যের উচ্চ গুণগতমান এবং নিখুঁত ফিনিশিং আকৃষ্ট করে ক্রেতাদের। বিশেষ করে, মেলায় প্রদর্শিত হোটেল-রেস্টুরেন্টের উপযোগী করে তৈরি নতুন মডেলের বার ফ্রিজ ভুটানের পারো অঞ্চল থেকে আগত হোটেল ব্যবসায়ীদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলে। এ ছাড়াও ভুটানের বেশ কয়েকটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন ব্র্যান্ডের স্মার্ট টিভি, ২৪ ও ২৮ ইঞ্চিএলইডি টিভি, ইন্ডাকশন কুকার এবং সুইচ-সকেট আমদানি করার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছেন।

মেলায় ওয়ালটনের প্রতিনিধি ফয়সাল ইসলাম শশী জানান, ভুটানে ওয়ালটন পণ্যের বিক্রি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। মেলাতেও মিলেছে ব্যাপক সাড়া। এ অবস্থায় ভুটানের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান গ্রিন কিচেন এন্ড ব্যাটারি ইক্যুইপমেন্ট সাব-ডিলার হিসেবে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। অতি শীঘ্রই স্টেট ট্রেডিং করপোরেশন অব ভুটান লিমিটেড-এর সঙ্গে এ ব্যাপারে চুক্তি করবে।

ওয়ালটনের আন্তর্জাতিক বিপণন বিভাগের প্রধান রকিবুল ইসলাম রাকিব বলেন, ভুটানে ইতিমধ্যে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের ফ্রিজ, এলইডি টিভিসহ অন্যান্য পণ্যের এক বিশাল বাজার সৃষ্টি হয়েছে। এই মেলায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে একদিকে ভুটানের ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্যের বাজারে ওয়ালটনের অবস্থান আরো সুদৃঢ় হলো। অন্যদিকে মেলায় আগত বিদেশি ক্রেতা-দর্শণার্থীদের সঙ্গেও যোগসূত্র স্থাপিত হলো। যা সার্কভূক্ত দেশে ওয়ালটনের বাজার সম্প্রসারণ আরো সহজ করবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের ইলেকট্রনিক্স ও ইলেকট্রিক্যাল পণ্যের বাজারে শীর্ষস্থান অর্জনের পর ওয়ালটনের লক্ষ্য বিশ্ববাজারেও শক্তিশালী অবস্থান তৈরি করা। ওয়ালটন ইতিমধ্যে বিশ্বের বিশটিরও বেশি দেশে উচ্চপ্রযুক্তি নির্ভর পণ্য রপ্তানি করছে। আন্তর্জাতিক বাজার সম্প্রসারণ কার্যক্রম গতিশীল করতে অংশ নিচ্ছে চীনের ক্যানটন ফেয়ারসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায়।


মন্তব্য