kalerkantho

বইমেলায় প্রচুর মানুষ, অনলাইনেও কম নয়!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৩৮ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বইমেলায় প্রচুর মানুষ, অনলাইনেও কম নয়!

২০১৮ এর বইমেলায় মোট বিক্রির পরিমাণ প্রায় ৭০ কোটি টাকা। ২০১৭তে তা ছিল প্রায় ৬৫ কোটি টাকা। বইমেলার সময় প্রচুর বই বিক্রি হচ্ছে, এবং বছর বছর এ সংখ্যাটা বাড়ছে, এটা অত্যন্ত আশাপ্রদ ব্যাপার। সোহরাওয়ার্দি উদ্যান এবং বাংলা একাডেমি প্রান্তরে এই বই উৎসবের পাশাপাশি ভার্চুয়াল জগতে বই বিকিকিনিও কিন্তু চমকে দেয়ার মতো! রকমারি ডট কমে বইমেলা উপলক্ষ্যে প্রতিবছর ফেব্রুয়ারিতে কোটি টাকার ওপরে বই বিক্রি হয়। সংখ্যাটা দেড় কোটি বা দুই কোটি টাকা হওয়াও অসম্ভব নয়! এত বিপুল পরিমাণ বই শুধুমাত্র একটি ওয়েবসাইট থেকে বিক্রি হচ্ছে, ব্যাপারটা বিস্ময়কর! এক্ষেত্রে রকমারির বিপণন এবং প্রচার কৌশল এবং বিশ্বস্ত সার্ভিস একটি বড় কারণ।  

কেন রকমারি থেকে বই কেনেন? এ প্রশ্নের জবাবে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা হাসান জানালেন “রকমারির সার্ভিস ভালো, কালেকশন ভালো, এটার পাশাপাশি একটি বড় কারণ হলো, তারা ক্রেতাকে গুরুত্ব দেয়। কোন ক্রেতার কোন ধরণের বই পছন্দ এটি তাদের ওয়েবসাইটের এ্যালগরিদমের মাধ্যমে তারা সনাক্ত করতে পারে, এবং পাঠককে তার পছন্দের বই বেছে নিতে সাহায্য করে। প্রযুক্তির প্রয়োগে তারা অন্যদের চেয়ে বেশ এগিয়ে আছে”।

রকমারির আরেকজন নিয়মিত গ্রাহক লালমাটিয়া কলেজের ছাত্রী নীলিমা বললেন- “রকমারি সবসময় আপটুডেট থাকে। আমি কোন বই বা লেখকের নাম লিখে গুগলে সার্চ দিলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই রকমারির নাম পেয়ে যাই। এখন তো রকমারি আমার ব্রাউজারে বুকমার্ক করাই আছে!”।

রকমারিতে বিপুল পরিমাণ বই বিক্রির ক্ষেত্রে ভালো সার্ভিস, প্রযুক্তির সুচারু প্রয়োগ এবং দুর্দান্ত কালেকশন ছাড়াও মার্কেটিং স্ট্রাটেজিটাও বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি নিয়ামক হিসেবে কাজ করে থাকে। নানারকম ক্রিয়েটিভ অফার দিতে রকমারির জুড়ি নেই। রকমারির উপহারের ভাণ্ডার যেন অফুরন্ত! প্রতি মাসে ফানডে অফারের জন্যে অনেক পাঠকই অপেক্ষা করে থাকেন। সবার জন্যে উন্মুক্ত অফার ছাড়াও রকমারির রয়েছে প্রতিটি ক্রেতার জন্যে আলাদা কাস্টমাইজড মার্কেটিং প্ল্যান! 

রকমারির “একটু পড়ে দেখুন” সুবিধাটিও অনেক পাঠককে বই কিনতে উদ্বুদ্ধ করছে। সিটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী সামিয়া জানালেন “বইমেলায় যেতে পারি নি বিভিন্ন কারণে। স্টল থেকে বই নেড়েচেড়ে দেখে কিনতে পছন্দ করি আমি। রকমারিতেও দেখলাম এই সুবিধাটি আছে। একটি বইয়ের প্রথমদিকের বেশ কিছু অংশ পড়ে নেয়া যায়। এছাড়া ফ্ল্যাপের লেখা, লেখক পরিচিতি, ইত্যাদি পড়েও ধারণা পাওয়া যায় বই সম্পর্কে”।
নিবিড় যত্ন আর পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে রকমারি এভাবেই অতিক্রম করে যাচ্ছে নিজেদের। হয়ে উঠেছে অনলাইনে বই বিক্রয়ের পথ প্রদর্শক।

মন্তব্য