kalerkantho


আজ মেলায় বই এসেছে ৯০টি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৪৬



আজ মেলায় বই এসেছে ৯০টি

আজ সোমবার অমর একুশে বইমেলার ষষ্ঠ দিন। মেলায় আজ নতুন বই এসেছে ৯০টি এবং  আটটি নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।

বিকেল ৪টায় বইমেলার মূল মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় 'হরিচরণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর অভিধান : দেড় শতম জন্মবর্ষের স্মরণ' শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড. স্বরোচিষ সরকার। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অধ্যাপক আহমদ কবির, অধ্যাপক মহাম্মদ দানীউল হক ও হাকিম আরিফ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ড. গোলাম মুরশিদ।

ড. স্বরোচিষ সরকার বলেন, "হরিচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের অসামান্য কীর্তি বঙ্গীয় শব্দকোষ। তিনি বাংলাদেশ অঞ্চলের লিখিত শব্দভাণ্ডারকে ধারণ করার চেষ্টা করেছেন। তাঁর সংকলিত সংস্কৃত শব্দও বঙ্গীয়, অ-সংস্কৃত শব্দও বঙ্গীয়। বঙ্গদেশে প্রচলিত এবং লিখিত রূপে প্রাপ্ত যাবতীয় শব্দ নিয়ে তিনি অভিধান রচনা করতে চেয়েছিলেন,  সফলতার সঙ্গে তা তিনি সম্পন্নও করেছেন- এটাই তাঁর কীর্তি। এ কীর্তির জন্য তিনি বঙ্গবাসীর নিকট কৃতজ্ঞতাভাজন।

যতদিন বাংলা ভাষা থাকবে, বাংলা ভাষা ব্যবহারকারীদের নিকট হরিচরণের অভিধান ততদিন স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

আলোচকরা বলেন, "হরিচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে বাঙালির সমষ্টিগত ঋণ অশেষ। তাঁরই প্রদর্শিত পথে বাংলা একাডেমি ষাটের দশকে মুহম্মদ শহীদুল্লাহর সম্পাদনায় 'আঞ্চলিক ভাষার অভিধান' থেকে সম্প্রতি গোলাম মুরশিদের সম্পাদনায় 'বিবর্তনমূলক বাংলা অভিধান' প্রণয়ন ও প্রকাশের মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক দায়িত্ব পালন করেছে। একাডেমি এসব অভিধানকে সম্পূর্ণ আর হালনাগাদ করার উদ্যোগ গ্রহণ করলে হরিচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেড় শতম জন্মবছরের এ আলোচনা তাৎপর্যপূর্ণ হবে। "

সভাপতির বক্তব্যে ড. গোলাম মুরশিদ বলেন, "হরিচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্মরণের তাৎপর্য অপরিসীম। তাঁর অভিধান-অন্বেষা যেমন বঙ্গীয় শব্দকোষ'র মতো মহার্ঘ্য অভিধান আমাদের উপহার দিয়েছে, তেমনি উত্তরকালের গবেষকদের জন্য প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা রেখে গেছে। " সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন ফাতেমা-তুজ-জোহরা, সুজিত মোস্তফা, ইয়াসমিন মুশতারী এবং এ কে এম শহীদ কবীর পলাশ।

আগামীকালের অনুষ্ঠান সূচি :

আগামীকাল ৭ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে বইমেলার সপ্তম দিন। মেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে 'হরিচরণ বাংলা ভাষার প্রযুক্তি ব্যবহার' শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন মোস্তফা জব্বার। আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন মো. নজরুল ইসলাম খান ও শ্যামসুন্দর সিকদার। সভাপতিত্ব করবেন অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী। সন্ধ্যায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

 


মন্তব্য