kalerkantho


লোকেশন থেকে

কাপড় দিয়ে দাগ ঢাকা

কোক স্টুডিওতে শুটিং হচ্ছিল বেঙ্গল প্লাস্টিক জগের একটি বিজ্ঞাপনের। নির্মাতা তৌহিদ মিটুল। সেখানে ছিলেন আহমেদ ইমরান

৬ জানুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



কাপড় দিয়ে দাগ ঢাকা

হ্যান্ড মাইকে স্টার্ট বলতেই পিওরি ফায়ার থেকে জগে পানি ঢালতে শুরু করেন রাইশা। হঠাৎ ক্যামেরাম্যানের আপত্তি।

দেয়ালের দাগ দৃশ্যে ফুটে উঠছে। কী করা যায়। তিনিই সমাধান বাতলে দিলেন। বড় একটি সাদা কাপড় জোগার করে দাগ বরাবর ঝুলিয়ে দিতেই নিমেষে সমস্যার সমাধান

 

কোক স্টুডিওতে শুটিংয়ের মৌসুম। গেট দিয়ে ঢুকতেই হাতের বামে বিশাল পাহাড়ি গুহার সেট বানানো। তাতে চলছে শেষ মুহূর্তের রংতুলির আঁচড়। তার পাশেই বিআরটিসির একটি ডাবল ডেকার বাস এনে রাখা। তাতে যাত্রী বেশে যাঁরা উঠে বসেছেন তাঁরা আসলে একটি বিজ্ঞাপনের মডেল। একটু সামনে এগোতেই আরেকটি সেট তৈরির তোড়জোড় চোখে পড়ল।

এখানেই চার নম্বর সেটে বিজ্ঞাপনের সেট ফেলেছেন নির্মাতা তৌহিদ মিটুল। সেখানে ঢুকতেই চোখে পড়ল স্কুলের সাজানো ক্লাসরুম। মিটুল জানালেন, সকালে সেখানেই ক্লাসরুমের দৃশ্য শুটিং করা হয়েছে। এই বিজ্ঞাপনে ছাত্রের ভূমিকায় মডেল হয়েছেন এ টি এম শামসুজ্জামানের নাতি জারিফ আহমেদ। জারিফের মা এ টি এম শামসুজ্জামানের ছোট মেয়ে। তিনি জানালেন, এর আগে আরো পাঁচটি বিজ্ঞাপনে মডেল হয়েছে জারিফ। এবারের বেঙ্গল প্লাস্টিক জগ তার ষষ্ঠতম বিজ্ঞাপন।

এতক্ষণ সবাই যার যার কাজে ব্যস্ত ছিলেন। মেকআপম্যান মডেল রাইশা রহমানকে সাজানোয় ব্যস্ত। ক্যামেরাম্যান, সেট ডিজাইনার, অন স্পট এডিটর সবাই যখন প্রস্তুত, তখনই মনিটরে চোখ রাখলেন মিটুল। হ্যান্ড মাইকে স্টার্ট বলতেই পিওরি ফায়ার থেকে জগে পানি ঢালতে শুরু করেন রাইশা। হঠাৎ ক্যামেরাম্যানের আপত্তি। দেয়ালের দাগ দৃশ্যে ফুটে উঠছে। কী করা যায়। তিনিই সমাধান বাতলে দিলেন। বড় একটি সাদা কাপড় জোগার করে দাগ বরাবর ঝুলিয়ে দিতেই নিমেষে সমস্যার সমাধান। মনিটরে মনে হলো ওপর থেকে সুন্দর একটি পর্দা ঝুলছে সেখানটায়। এবার সব ঠিকঠাক। মিটুল স্টার্ট বলতেই পানি ঢালতে শুরু করেন রাইশা। হঠাৎ ভয়েসওভার ভেসে আসে—যে জগে পানি ঢালছেন তা ভালো মানের তো? অবাক হন তিনি। এই অবাক হওয়া ঠিকমতো হতে হতেই পানিতে জগ ভরে গেল। সেই পানি আবার পিওরি ফায়ারে ঢেলে আবার শুরু দৃশ্য ধারণ। বেশ কয়েকবারের চেষ্টায় দৃশ্যটি ওকে করেন তিনি।

১০ মিনিটের বিরতি। কথা হয় মিটুলের সঙ্গে। বলেন, ‘৩০ মিনিটের এই বিজ্ঞাপনে বেশ কয়েকটি সিকোয়েন্স। সব এক দিনেই শেষ করতে হবে। এটাই আমার জন্য একটু চ্যালেঞ্জ। যে গল্প তাতে বেশ ভালো একটি বিজ্ঞাপন হবে বলেই মনে করি। ’ পাশেই ছিলেন বিজ্ঞাপনটির কপিরাইটার এক্সপ্রেশনসের অ্যাসোসিয়েট ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর আসিফ ইকবাল। তিনি বলেন, ‘বেঙ্গল প্লাস্টিক জগের বিশেষ একটি গুণ নিয়েই বিজ্ঞাপনের গল্প, যেটা অন্য ব্র্যান্ডের প্লাস্টিক জগগুলোতে নেই। এতে দেখা যাবে একজন মা পানির বিশুদ্ধতা নিয়ে যতটা সচেতন, পানি পানের পাত্র নিয়ে ততটা নন। বাকিটুকু প্রচারের পরই জানা যাবে। ’

১০ মিনিটের বিরতি শেষ। পরের দৃশ্য ধারণে সবাই আবার তৈরি। এই দৃশ্যও রাইশার। হাতের পানির জগটি নিয়ে ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন তিনি। চোখে ফুটে উঠবে কিছুটা সংশয়। কয়েকবারের চেষ্টায় দৃশ্যটা ওকে হয়। ওদিকে তৈরি জারিফ আহমেদ। এবার তার দৃশ্য ধারণের পালা। আসিফ ইকবাল জানালেন, থ্রি সিক্সটি ডিগ্রি ক্যাম্পেইনের এই বিজ্ঞাপন জানুয়ারি মাসেই সব প্রচারমাধ্যমে একযোগে প্রচার শুরু হবে।


মন্তব্য