kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


থার্ড পারসন

জিঙ্গেলে দেন প্রাণ

বিজ্ঞাপনে জিঙ্গেল করেন রাশিদ শরীফ শোয়েব। এখন পর্যন্ত পাঁচ শর বেশি বিজ্ঞাপনে মিউজিক করেছেন। লিখেছেন মাহতাব হোসেন

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



জিঙ্গেলে দেন প্রাণ

শিবলী সাদিকের পরিচালনায় আরএফএল পিভিসি ডোর বিজ্ঞাপনে প্রথমবারের মতো মিউজিক করেন শোয়েব। ২০০৬ সালে সেই শুরু বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেল করা।

১০ বছর পরে এসে সংখ্যাটা আজ ৫০০ ছাড়িয়ে গেছে। একই সঙ্গে অনেক বিজ্ঞাপনের সাউন্ড ডিজাইনিং করেছেন। শোয়েব বলেন, ‘বিজ্ঞাপনের মিউজিক ও সাউন্ড ডিজাইনের কাজ ভীষণ উপভোগ করি। এটা আমার কাছে খুব চ্যালেঞ্জিং মনে হয়। ’

একটা বিজ্ঞাপনে মিউজিকের কী কী কাজ করতে হয়? শোয়েব বলেন, ‘বিজ্ঞাপনের মিউজিকের চ্যালেঞ্জ হলো, খুব কম সময়ের মধ্যে পুরো ছবির আবেগ সুরের মাধ্যমে প্রকাশ করা। সেকেন্ড ধরে, অনেক সময় ফ্রেম ধরে কাজ করতে হয়! কখনো মিউজিকের প্রভাব ব্যবহার করতে হয়। বিজ্ঞাপনের ভাঁজে ভাঁজে মিউজিক ও সাউন্ড খেলানোর বিষয় থাকে। একটা সময় আমাদের দেশের টেলিভিশন বিজ্ঞাপন জিঙ্গেলনির্ভর ছিল। এখন সেই প্রবণতা অনেকখানি কমে এসেছে। গল্পনির্ভরতা বেড়েছে। কিন্তু শব্দের কাজ এতটুকু কমেনি। তার পরও জিঙ্গেল যে হারিয়ে গেছে তা নয়। আমি নিজেই বেশ কিছু বিজ্ঞাপনের জিঙ্গেল করেছি। সুর করেছি, আবার কণ্ঠও দিয়েছি। ভয়েস ওভারও দিই মাঝেমধ্যে। ’

শোয়েব বিজ্ঞাপনে কাজ করতে রাজধানীর নিকেতনে গড়ে তুলেছেন ‘স্টুডিও কাউবেল’। এখানে বিজ্ঞাপনের মিউজিক, ডাবিং, সাউন্ড ডিজাইনের কাজ করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগে পড়াশোনা করেছেন। চাইলে ক্যারিয়ার গড়তে পারতেন অন্য ক্ষেত্রেও। কিন্তু তাঁর আগেই মন হারিয়েছেন মিউজিকে। শোয়েব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আগে ইন্টারমিডিয়েটে পড়ার সময় মিউজিকের প্রতি ঝুঁকে পড়েন। মেজবাউর রহমান সুমন ও শিবু কুমার শীলের সঙ্গে মিলে গড়ে তোলেন ব্যান্ড—‘মেঘদল’। তিনি লিড গিটারিস্ট। মেঘদলের দুটি অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। তখন থেকেই নিজেদের গানের পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের মিউজিকের প্রতি মনোযোগী হন। শুরু করেন জিঙ্গেল, মিউজিক কম্পোজিশন ও সাউন্ড ডিজাইনিং। শোয়েবের মিউজিক ও সাউন্ড ডিজাইন করা বহু আলোচিত বিজ্ঞাপন রয়েছে। যেমন—গ্রামীণফোন অনন্ত জলিল, একুশে ফেব্রুয়ারি (সিয়েরা লিওন) ফাটাফাটি ফাইজুল, ভিম, ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও নাসিরের বুস্টের বিজ্ঞাপন, রবি চ্যাম্পিয়ন নেটওয়ার্ক, জিটিভির ‘আমি যা দেখি, তুমি কি তা দেখো’, ‘উইংস ক্লিয়ার লেমন ড্রিংক’, ‘গুডলাক বলপেন’ (চিঠি)। এ ছাড়া  নামি কম্পানির অসংখ্য বিজ্ঞাপনের মিউজিক ও সাউন্ড ডিজাইন করেছেন। ভবিষ্যতে ফিল্মের মিউজিকে কাজ করবেন এমন ইচ্ছা থাকলেও ভালো কিছু বিজ্ঞাপনের সঙ্গে তাঁর নাম যুক্ত থাকুক—এটাই তাঁর চাওয়া।


মন্তব্য