kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

বিজ্ঞাপন তরঙ্গ

ঈদ বিজ্ঞাপন

ঈদ উপলক্ষে প্রচার শুরু হয় অনেক বিজ্ঞাপনের। আসছে কোরবানি ঈদের এমন বিজ্ঞাপন নিয়ে লিখেছেন আতিফ আতাউর

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ঈদ বিজ্ঞাপন

‘ভাইসাব হবরেখান, হবরেখান,...দেরি অইয়া যায়। আঁরতুন লগে ঈদের নমাজ পড়িয়োঁ হালায়।

এক বছরে দুইয়ান খুশি আমরা মুসলমান, একখান অইল রমজানের ঈদ, আরেকখান কোরবান, ভাইসাব আরসিকোলা খান। ’ কয়েক বছর আগে নোয়াখালীর আঞ্চলিক ভাষায় মোজোর বিজ্ঞাপনের এই  জিঙ্গেল তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করে। মানুষের মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়ে—ভাইসব খবর একখান। বিজ্ঞাপনটির জনপ্রিয়তায় রাজশাহী অঞ্চলের নানা-নাতির গানের একটি ভার্সন করা হয়। এটাও জনপ্রিয়তা পায়। এরপর করা হয় বরিশালের আঞ্চলিক ভাষায়। প্রতিবছরই ঈদকে ঘিরে বিজ্ঞাপন প্রচারের বেশ তোড়জোড় শুরু হয় কম্পানিগুলোর মধ্যে। বিশেষ করে প্রতিযোগী কম্পানির পণ্য পেছনে ফেলে নিজেদের ব্যবসা আরো বেগবান করার জন্য বেশির ভাগ সময় ঈদকে বেছে নেন তাঁরা। টেলিভিশন, ফ্রিজ, ওভেন, মসলা, সেমাই, লাচ্ছি, বিভিন্ন কোমল পানীয়, কিচেন আসবাব, তেল, পোলাওয়ের চাল, ঘিসহ নানা ধরনের পণ্যের বিজ্ঞাপন প্রচার করতে দেখা যায় ঈদের আগ দিয়ে। আর কোরবানির ঈদে এই তালিকায় সবার চেয়ে এগিয়ে থাকে বিভিন্ন ধরনের কোমল পানীয় আর ফ্রিজের বিজ্ঞাপন। এ বছরও থেমে নেই ঈদকেন্দ্রিক বিজ্ঞাপনের প্রচার। কোমল পানীয় মোজো এরই মধ্যে প্রচার শুরু করেছে ঈদের বিশেষ বিজ্ঞাপন—মোজো হাম্বা ইজ অন। বিজ্ঞাপনটি নির্মাণ করেছেন টিটো রহমান। বিজ্ঞাপনটির স্লোগান—তোলো হাম্বাফি, জিতো হাম্বা প্রতিদিন একটি। গরুর সঙ্গে সেলফি তুলে মোজোর ফেসবুক পেইজ মোজোমাস্তিতে আপলোড করে গরুসহ পাওয়ার ব্যাংক ও পেনড্রাইভ জেতার সুযোগ রয়েছে। বিজ্ঞাপনটির এজেন্সি অ্যাডকম লিমিটেড। ঈদ উপলক্ষে স্যামসাং ইলেকট্রনিকস প্রচার করছে স্ক্যাচকার্ড অফারের বিজ্ঞাপন। বিজ্ঞাপনটির এজেন্সি এশিয়াটিক জেডাব্লিউটি। ঈদের উচ্ছ্বাসে আপনার পাশে স্ল্লোগানের এই বিজ্ঞাপনে স্ক্র্যাচকার্ড ঘষে নগদ ছাড়সহ রয়েছে রেফ্রিজারেটর, টিভি, ওয়াশিং মেশিন, এসি ও মাইক্রোওয়েভ ওভেন নিয়ে স্যামসাংয়ের কমপ্লিট হোম অ্যাপ্লায়েন্স সেট জেতার সুযোগ। হুয়ায়ে মোবাইল ঈদ জম্পেশ অফারে দিচ্ছে বিভিন্ন গিফট। কোকাকোলা প্রচার করছে টেস্ট দ্য ফিলিং শিরোনামের নতুন বিজ্ঞাপন। নির্মাণ করেছেন আশফাক উজ-জামান বিপুল। প্রচার হচ্ছে সিঙ্গার ফ্রিজের বিজ্ঞাপন। গোলাম হায়দার কিছলুর এই বিজ্ঞাপনে মডেল হয়েছেন ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। ঈদ উপলক্ষে নিজেদের পণ্যে ছাড়ও দিচ্ছে সিঙ্গার ফ্রিজ। এজেন্সি মিডিয়াকম লিমিটেড। প্রচারিত হচ্ছে নাম্বার ওয়ান কনডেন্স মিল্ক ডেজার্টের একটি বিজ্ঞাপন। ঈদে বাহারি মিষ্টান্ন তৈরিতে দুধের যে জুড়ি নেই সেই বার্তা তুলে ধরা হয়েছে বিজ্ঞাপনটিতে। গল্প লিখেছেন গ্রের কপি সুপারভাইজার তাওহীদ মিল্টন। নির্মাণ করেছেন শরাফ আহমেদ জীবন। ঈদ উপলক্ষে শার্প দিচ্ছে নগদ মূল্য ছাড়সহ স্পেশাল গিফট। এ ছাড়া শার্প ডিপফ্রিজ কিনলেই আয়রন মেশিন ফ্রি। ঈদকে কেন্দ্র করে এ রকম আরো অনেক বিজ্ঞাপন এখন প্রচারিত হচ্ছে।

ঈদের বিজ্ঞাপন সম্পর্কে জানতে চাইলে সান কমিউনিকেশনসের ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর তানভীর হোসেন বলেন, ‘ঈদের আগে মানুষের পকেটে টাকা বেশি থাকে। এ জন্য তারা দরকারী পণ্যগুলো কেনার সুযোগ পায়। বেশ কদিন ছুটি থাকায় টেলিভিশন দেখার সুযোগ পায়। এই সময় কনজ্যুমাররাও চায় তাদের মনের মধ্যে ঢুকে যেতে। এ জন্য ঈদের সময় বিজ্ঞাপন প্রচার বেশি দেখা যায়। ’ ঈদের বিজ্ঞাপনের গল্প সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘গল্পে আগের চেয়ে এখন অনেক বেশি পার্থক্য। আগে আবেগের গল্প বেশি তুলে ধরা হতো। এখন আবেগের জায়গায় গল্পে স্থান করে নিয়েছে আনন্দ। এর কারণ আমাদের তারুণ্য। তারা আবেগের চেয়ে আনন্দকে এখন বেশি ধারণ করে। ঈদে নানা অফার দেয় কম্পানিগুলো। অফার নিয়ে বিজ্ঞাপন বেশি হয় বলে তাতে গল্পের তেমন সুযোগ থাকে না। ’ বিজ্ঞাপন নির্মাতা আদনান আল রাজীব বলেন, ‘ঈদের বিজ্ঞাপনের মধ্যে মনে আছে আরসি কোলার ভাইসাব হবরেখান বিজ্ঞাপন। এখন আগের মতো ঈদে তত বেশি বিজ্ঞাপন প্রচারিত হয় না। যেগুলো হয় তার গল্পেও কোনো আবেদন নেই। সব কিছু শর্টকাটে করতে চান সবাই। ’

 


মন্তব্য