kalerkantho

হাই হিল পরলে মনে রাখুন

হাইহিল পরলে কিছু বিষয় আগে থেকে খেয়াল রাখতে হবে। জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ইশরাত শর্মী। লিখেছেন মোনালিসা মেহরিন

১৮ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে




হাই হিল পরলে মনে রাখুন

হাই হিল পরলে সারা শরীরের ভার এসে পড়ে গোড়ালির ওপর। হাঁটার সময় গোড়ালির পেশি ও লিগামেন্টে চাপ পড়ে। দীর্ঘদিন ধরে গোড়ালির ওপর চাপ পড়তে পড়তে হাড় ক্ষয়ে যায়। লিগামেন্ট দুর্বল হয়ে পড়ে। গোড়ালি ফুলে যায়। গোড়ালিতে ব্যথা হয়। সাধারণত ৪৫ বছর বয়স থেকে নারীদের হাড় ক্ষয় হতে শুরু করে। কিন্তু হাই হিল পরার কারণে অল্প বয়সেই হাড় ক্ষয় শুরু হয়। এই সমস্যা সহজে দূর করা যায় না। ফলে সামান্য আছাড় খেলেই পায়ের হাড় ভেঙে যাওয়ার ভয় থাকে। পঙ্গু হওয়ার প্রবণতা তৈরি হয়। হাই হিল মেরুদণ্ডের ওপর বড় রকমের প্রভাব ফেলে। হাই হিল পরলে মেরুদণ্ডের পেশি ও হাড়ের ওপর বাড়তি চাপ পড়ে। এতে পিঠের নিচের অংশে বেশির ভাগ সময় ব্যথা হতে পারে। হাই হিল পায়ের পাতার ওপরও প্রভাব ফেলে। এতে পায়ের হাড় বৃদ্ধি পাওয়া থেকে শুরু করে ব্যথা, অবসাদ সৃষ্টি হয়। হাই হিল হাঁটু ও গোড়ালির পেছনের কাফ পেশির ওপরও ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। এতে পেশি জমাট বেঁধে যায়। রক্ত চলাচলে বিঘ্ন ঘটায়, পা ব্যথা করে ও অবশ হয়ে যায়। অনেক নারী হাইহিল পরার কারণে ক্রনিক অস্টিওআর্থারাইটিসে ভোগেন। হাই হিলের পেছন দিক যেমন অনেক উঁচু থাকে, তেমনি আবার সামনের দিক থাকে অনেকটা সুচালো। সামনের দিকে বেশি জায়গাও থাকে না। এতে পায়ের আঙুলেও অনেকটা চাপ পড়ে। এ রকম জুতায় হোঁচট খেয়ে পড়ে যাওয়ার আশঙ্কাও বেশি। এ জন্য গোলাকার কিংবা পিপটোটাইপ জুতা কেনা ভালো। তাতে পায়ের ব্যথা অপেক্ষাকৃত কম হবে।

তবে কি হাইহিল একেবারেই পরবেন না? পরবেন, তবে মানতে হবে কিছু নিয়ম। হাইহিল জুতা পরে বেশি হাঁটাহাঁটি না করাই ভালো। এমনকি বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকাও ক্ষতিকর। তবে হাইহিল পরে যদি বসে থাকা যায়, তবে তেমন ক্ষতির ভয় নেই। সাধারণত তিন ইঞ্চি বা এর থেকে বেশি উঁচু হিল পরলে পায়ের সমস্যা বেশি হয়। কম উঁচু হিলে এই সমস্যা কম হয়। উঁচু হিলের জুতা পরতে চাইলে আগাগোড়া সমান উঁচু দেখে কেনা ভালো। এতে শরীরের ভার সামনে পেছনে সমানভাবে পড়ে। এতে হাঁটতেও সুবিধা হয়। হাইহিল পরে যদি কোথাও যেতেই হয় তবে সঙ্গে একজোড়া ফ্ল্যাট জুতাও নিয়ে নিন। যাতে হিল ব্যবহার শেষে আরামদায়ক জুতা ব্যবহার করতে পারেন।

প্রথম দিকে হাই হিল পরলে ব্যথা তেমন টের পাওয়া যায় না। কিন্তু গোড়ালির ওপর চাপ পড়তে শুরু করলে ব্যথা শুরু হবেই। বাড়িতে পানি গরম করে তাতে পা কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রাখুন। এতে পেশিগুলো আবার সচল হবে এবং ব্যথা কমতে শুরু করবে। পায়ে ম্যাসাজ করলেও উপকার পাওয়া যাবে। নতুন জুতা পরতে গেলে পায়ে অনেক সময় ফোস্কা পড়ে। এ জন্য সঙ্গে ব্যান্ড এইড ও ইনভিজিবল টেপ রাখুন। হাইহিল পরে হাঁটার সময় পায়ের গোড়ালির অংশ আগে মাটিতে ফেলতে হবে। এতে শরীরে ভারসাম্য রাখা সহজ হবে। ক্ষতির ভয় কম থাকবে।

মন্তব্য