kalerkantho

রূপচর্চা

চুলের জন্য অভ্যাস পরিবর্তন

চুলের যত্নের কোনো কমতি করেন না আপনি। শ্যাম্পু, কন্ডিশনার, হেয়ার প্যাকসহ কত কিছু! এসবের সঙ্গে নিজের কিছু অভ্যাসেও পরিবর্তন আনা জরুরি। জানালেন রেড বিউটি পার্লার ও স্যালনের রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন। লিখেছেন মোনালিসা মেহরিন

১৮ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চুলের জন্য অভ্যাস পরিবর্তন

নিত্যদিনের জীবনযাত্রায় কিছু ভুল অভ্যাস চুলের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দেখা দেয়। ব্যস্ত জীবনে মানিয়ে নিতে রোজ হয়তো ঠিকমতো নিজের খেয়াল রাখতে পারেন না। কিন্তু এটা ঠিক নয়। দিনের কিছুটা সময় নিজের জন্যও রাখতে হবে। এই সময়টায় ত্বক ও চুলের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। কিন্তু এটা করতে গিয়ে অনেকেই ভালোর পরিবর্তে মন্দের শিকার হন। এ জন্য আগে থেকেই কিছু অভ্যাস বদলে নেওয়া ভালো।

চুল আঁচড়ানো ভালো। কিন্তু বারবার চুল আঁচড়াবেন না। সারা দিনে এক থেকে দুবার চুল আঁচড়ান। এর বেশি যদি চুল আঁচড়ানোর অভ্যাস থাকে তবে তা বাদ দিন। চুল আঁচড়ানোর জন্য মোটা দাঁতের চিরুনি ব্যবহার করুন। মাঝেমধ্যে চুল আঁচড়ানোর জন্য চিরুনির পরিবর্তে নিজের আঙুল ব্যবহার করুন। হাতের আঙুলের সাহায্যে চুল ঠিক করে নিন।

ভেজা চুল কখনোই আঁচড়াতে যাবেন না।

অনেকেই শ্যাম্পু করার সময় বেশি তাড়াহুড়ো করেন। এটা চুলের জন্য ক্ষতিকর। শ্যাম্পু করতে হবে ধীরেসুস্থে সময় নিয়ে। চুলে পানি দিয়ে সঙ্গে সঙ্গে শ্যাম্পু করা যাবে না। আগে ভালো করে মাথার চুল সম্পূর্ণভাবে ভিজিয়ে নিতে হবে। এরপর চুলগুলো কয়েকটি ভাগে ভাগ করে নিন এবং আস্তে আস্তে চুলে শ্যাম্পু করুন। শ্যাম্পু করার সময় তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে চুলে জট লাগানো যাবে না। চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত দৈর্ঘ্য বরাবর শ্যাম্পু করতে হবে।

শ্যাম্পু করার আগে কিছুটা প্রস্তুতি নিন। গোসল করবেন আর শ্যাম্পু করবেন—এমন অভ্যাসের কথা মাথা থেকে বাদ দিন। শ্যাম্পু করার কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে মাথায় নারকেল তেল ম্যাসাজ করুন। সবচেয়ে ভালো হয় শ্যাম্পু করার আগের রাতে মাথায় কুসুম গরম নারকেল তেল মেখে ঘুমালে।

অনেকে চুলে শ্যাম্পু করেই নিজের দায়িত্ব শেষ বলে মনে করেন। কিন্তু শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, চুলে কন্ডিশনার মাখার সময় যেন মাথার ত্বকে না লাগে। শ্যাম্পু করার পর চুল শুকানোর জন্য তাড়াহুড়া করার অভ্যাসটাও ভালো নয়। মাথার চুলের পানি শুষে নেওয়ার জন্য আলতো করে তোয়ালে ব্যবহার করুন। মাথার ত্বক মোছার কাজটিও কিন্তু করতে হবে রয়ে সয়ে। অনেকেই চুলের পানি শুকিয়ে নেওয়ার জন্য তোয়ালে দড়ির মতো পাকিয়ে চুল ঝাড়েন। এই অভ্যাস আজ থেকেই ঝেড়ে ফেলুন। চুল শুকানোর জন্য রোদে গিয়ে বসে থাকবেন না। গোসল করার পর রুমে ফ্যানের নিচে বসে থাকুন কিছুক্ষণ। চাইলে টেবিল ফ্যানের হাওয়া চুলে লাগাতে পারেন। হেয়ার ড্রায়ারে যদি চুল শুকানোর অভ্যাস থাকে বাদ দিয়ে দিন সেটাও। একান্ত যদি প্রয়োজন হয় তো ব্যবহার করতে পারেন। তবে সেটাকে অভ্যাস করা যাবে না।

মন্তব্য