kalerkantho


আপনার শিশু

শিশুর নতুন স্কুল

প্রথম স্কুলে যাওয়ার আগে শিশু এবং অভিভাবক দুজনেরই কিছু প্রস্তুতির প্রয়োজন। শিশুকে স্কুলের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত করতে পরামর্শ দিয়েছেন চাইল্ড ডেভেলপমেন্ট এক্সপার্ট ফারহানা আহমেদ

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



শিশুর নতুন

স্কুল

স্কুল সম্পর্কে ধারণা দিন

যেহেতু সম্পূর্ণ অপরিচিত একটা পরিবেশে শিশুদের দিনের একটা নির্দিষ্ট সময় একা থাকতে হবে। তাই বেশ আগে থেকেই শিশুকে স্কুলের জন্য মানসিকভাবে তৈরি করতে হবে। তাকে বলুন, স্কুলের সময়টা তাকে নিজেই নিজের দেখাশোনা করতে হবে। একা একা সহপাঠীদের সঙ্গে ক্লাস করতে হবে। গল্পের ছলে শিশুকে স্কুলের বিভিন্ন বিষয়ের সঙ্গে পরিচয় করানো যেতে পারে। বাড়ি থেকে স্কুলের কোন কোন বিষয়গুলো আলাদা, সেসব বেশ আগে থেকেই তাকে জানিয়ে রাখুন। স্কুলের নিয়ম-কানুনের বিষয়েও তাকে জানিয়ে রাখুন। ভাই-বোন কিংবা বাড়ির অন্য কেউ স্কুলে গেলে তার গল্প শোনাতে পারেন। কিংবা আপনার ছোটবেলার স্কুলের গল্প করুন। সম্ভব হলে ক্লাস শুরুর আগেই দু-এক দিন শিশুকে তার স্কুলে নিয়ে যান। ক্লাসরুম, শিক্ষক ও আয়াদের সঙ্গে পরিচয় করান। স্কুলের চারপাশের পরিবেশ, খেলার মাঠ বা খেলাধুলার সরঞ্জাম দেখানো যেতে পারে। এতে শিশুর মনে স্কুল নিয়ে ভয় বা উত্কণ্ঠা অনেকটাই কেটে যাবে।

 

স্কুলের কেনাকাটা

স্কুলের জন্য ব্যাগ, বই-খাতা, পেনসিল বক্স, টিফিন বক্স, পানির পটসহ বেশ কিছু শিক্ষা অনুষঙ্গ দরকার হয়। শিশুকে স্কুলে আগ্রহী করতে এই কেনাকাটায় শিশুকে সঙ্গে রাখুন। কেনাকাটায় তার পছন্দকে প্রাধান্য দিন। এতে শিশুর স্কুলে যাওয়ার প্রতি আগ্রহ বাড়বে। বাড়িতে ব্যবহূত খাতা, পেনসিল, কাটার, রাবার ইত্যাদি থেকে স্কুলের অনুষঙ্গগুলো আলাদা করুন। স্কুলড্রেসও কিছুদিন আগেই বানিয়ে নেওয়া ভালো। কয়েক দিন আগেই শিশুকে স্কুলড্রেস পরিয়ে অভ্যাস করানো যেতে পারে। শিশুকে নিজে নিজে স্কুলড্রেস পরা এবং স্কুলব্যাগ গোছাতে উত্সাহ দিন।

রুটিনে অভ্যস্ত করানো

স্কুল শুরু হলে প্রতিদিন নিয়ম করে সকালে ঘুম থেকে উঠতে হবে। ঘড়ি ধরে নাশতা করে বেরিয়ে যেতে হবে। এই রুটিন স্কুল শুরুর বেশ কয়েক দিন আগে থেকেই শুরু করুন। তাহলে স্কুলের প্রথম দিনের ঝামেলা অনেকখানি কমে যাবে। অনেক শিশুই সকালে ঘুম থেকে উঠতে চায় না। এ ক্ষেত্রে শিশুকে রাতে একটু আগেই বিছানায় শুইয়ে দিন, যেন সে কমপক্ষে ১০ ঘণ্টা ঘুমাতে পারে। তাহলে সকালে স্বাভাবিকভাবেই ঘুম ভেঙে যাবে। প্রতিদিন ঘুম থেকে ওঠার পর তাকে কয়েকবার মনে করিয়ে দিন, যেহেতু তাকে স্কুলে যেতে হবে, তাই তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে উঠে নাশতা করে ব্যাগ গোছানোর কাজটা এখন থেকেই শুরু করতে হবে। তবে কোনো কিছুতেই শিশুকে জোর করা, চাপ দেওয়া বা রাগ করে শেখাতে যাবেন না। এতে শিশুমনে স্থায়ী স্কুলভীতি তৈরি হবে।

 



মন্তব্য