kalerkantho


কাজের মানুষ

সহকর্মী মনের মতো নয়?

কর্মক্ষেত্রে অনেকে থাকেন, যাঁদের মতের সঙ্গে নিজেরটা না-ও মিলতে পারে। সহকর্মী মনের মতো না হলে কী করতে হবে পরামর্শ দিয়েছেন প্ল্যান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েটেডের কাউনসেলিং সাইকোলজিস্ট ফাহমিদা জামান। কথা শুনেছেন এ এস এম সাদ

১২ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



সহকর্মী মনের মতো নয়?

অফিসে একসঙ্গে কাজ করতে বিভিন্ন কাজের জন্য কথা বলতে হবে। সবচেয়ে ভালো পথ নিজের ধারণক্ষমতা বাড়ানো। অন্যের কাজ, কথাবার্তা যা-ই হোক না কেন, নিজে সব গ্রহণ করার করার ক্ষমতা বাড়ালে ধীরে ধীরে অপছন্দের ব্যক্তিকেও ভালো লাগা শুরু হতে পারে।  

অপছন্দের মানুষটি সম্পর্কে সমালোচনা করা যাবে না। একেক মানুষ একেক রকম হবে, এটাই স্বাভাবিক। অনেক সময় দেখা যায় যাকে আমরা পছন্দ করি না তার কাজ কিংবা আচরণ নিয়ে আমরা সমালোচনা করে থাকি। এটা ঠিক নয়। কোনো মানুষই দোষের ঊর্ধ্বে নয়। নিজের প্রিয় মানুষের দোষত্রুটি এড়িয়ে চলতে পারলে, এ ক্ষেত্রেও তা অবলম্বন করতে হবে। 

তার ভালো দিকগুলো দেখার চেষ্টা করুন। কারণ প্রত্যেক মানুষের মধ্যেই ভালো-খারাপ দুই-ই থাকবে। তাই কাজের মাঝে কিংবা অবসরে তার ভালো দিকগুলো নিয়ে কথা বলুন। এতে আন্তরিকতা বৃদ্ধি পাবে।

কর্মক্ষেত্রে আপনার অপছন্দের মানুষের কাছেই হয়তো কোনো বিষয়ে আবেদন করার প্রয়োজন হতে পারে। সে ক্ষেত্রে নিজের আচরণেও আন্তরিকতা প্রকাশ করুন। 

যদি আপনার কোনো কাজে তার সহায়তা দরকার হয় তাহলে সরাসরি তাকে বলুন। ঘুরিয়ে পেঁচিয়ে কথা বললে তিনি না-ও বুঝতে পারেন।

যাকে আপনার পছন্দ নয়, তার সঙ্গে আপনার কাজ করতেই হবে। যেহেতু তাকে আপনার পছন্দ নয়, এমন পরিস্থিতি আসতেই পারে, একটা সামান্য কথা বা কাজের জন্য ঝগড়া কিংবা কথা কাটাকাটি হয়ে যেতে পারে। এতে পরিস্থিতি শুধু পারস্পরিক সম্পর্কেই ভারি হবে তা নয়; বরং এ ঘটনা অফিসেও প্রভাব ফেলবে। এ ক্ষেত্রে নিজেই তার সঙ্গে সমস্যা নিয়ে কথা বলুন। কর্মক্ষেত্রের পরিবেশ স্বাভাবিক রাখুন। 

সামনাসামনি কথা বলে যদি ব্যাপারটা সমাধান করা না যায়, তাহলে অন্য পন্থা অবলম্বন করুন। মোবাইলে টেক্সট কিংবা ফেসবুকের ইনবক্সে পুরো ঘটনাটি খুলে বলুন। মোদ্দা কথা, আলোচনার ক্ষেত্র খোলা রাখতে হবে।

যাকে অপছন্দ করেন সে যদি কোনো কাজে সাহায্য চায় তাকে সাধ্যমতো সাহায্য করুন।

যাকে অপছন্দ তার সঙ্গে কথা বলার আগে একটু ভাবুন, কিভাবে, কোন কথাটা বলা উচিত।

এমনো হতে পারে, আপনি যাকে অপছন্দ করেন তিনি আপনাকে পছন্দ করেন।

 



মন্তব্য