kalerkantho


রূপচর্চা

দিন শেষে চুলের যত্ন

দিনের শেষে চুলের বাড়তি যত্ন নিতে ভুলে গেলে চলবে না। উপায় জানিয়েছেন রেড বিউটি স্যালনের রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন। লিখেছেন আতিফ আতাউর

১২ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



দিন শেষে চুলের যত্ন

সারা দিনের ধকল শেষে বাসায় ফিরে নিজের যত্ন নেওয়ার সময় পাওয়া দুষ্কর। কিন্তু সময় নেই অজুহাতে শরীর ও ত্বকের যত্নে হেলাফেলা করা ঠিক নয়। হাত, মুখ ও ত্বকের যত্নের পাশাপাশি চুলের পরিচর্যা করতে হবে নিয়মিত। বাইরের ধুলা-ময়লা ও ঘাম জমে চুল রুক্ষ হয়ে যায়। দিন শেষে চুলের যত্ন না নিলে জৌলুস হারাবে চুল।

 

চুল শুকিয়ে নিন

ঘরে ফিরেই চুল খুলে ফেলুন। চুল বেঁধে বাইরে গেলে বাতাস লাগে না। ফলে ঘাম হয়। বাসায় ফিরে সবার আগে চুল শুকিয়ে নিতে হবে। দরকার হলে ফ্যানের নিচে কিছুক্ষণ বসুন। বাইরে থেকে ফিরে চুল না শুকিয়ে সরাসরি গোসল করবেন না।

 

সঠিক নিয়মে চুল ধোয়া

চুল শুকানো শেষে ভালোভাবে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। শ্যাম্পু করার আগে চুল ভালোভাবে ভিজিয়ে নিতে হবে। তাড়াহুড়া করে শ্যাম্পু করবেন না। সময় নিয়ে আলতো করে চুলে শ্যাম্পু লাগান। খানিকটা বাড়তি সময় থাকলে চুলে তেল ম্যাসাজ করতে পারেন চুল ভেজানোর আগে। শাওয়ারের কমপক্ষে আধা ঘণ্টা আগে চুলে তেল ম্যাসাজ করতে হবে। শ্যাম্পু করার পর চুলে ভালো কোনো কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন। খেয়াল রাখতে হবে মাথার ত্বকে যেন কন্ডিশনার না লাগে। এরপর ভালোভাবে চুল শুকিয়ে নিতে হবে। তোয়ালে দিয়ে চেপে চেপে চুলের পানি শুষে নিন। তারপর ফ্যানের বাতাসে চুল শুকিয়ে নিন। ভেজা চুল তোয়ালে দিয়ে ঝাড়বেন না। এতে চুলের আগা ফেটে যায়।

 

চুলের বাঁধন

চুল শুকিয়ে গেলে মোটা দাঁতের চিরুণি দিয়ে আঁচড়ে নিতে হবে। ভেজা চুল আঁচড়াবেন না। এরপর পনিটেল করে চুল বেঁধে নিন। একেকজনের একেকভাবে চুল বেঁধে ঘুমানোর অভ্যাস। যে যেভাবে চুল বেঁধে ঘুমাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন সেভাবেই বেঁধে নিতে পারেন।

 

শাওয়ার না নিলে

বাড়ি ফিরে গোসল করতে না চাইলে চুল খুলে শুকিয়ে নিন। এরপর আঁচড়ে নিন। এবার মাথা নিচু করে মাথার ওপর থেকে নিচের দিকে উল্টো করে চুল আঁচড়ে ফেলুন। এতে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। চুলে পুষ্টি বাড়বে, চুলের বৃদ্ধি হবে। এরপর মাথা স্বাভাবিক করে নিয়ে আবার চুল আঁচড়ে পনিটেল করে বেঁধে নিন।

 

চুলের যত্নে আমলা

গোসল করার আধাঘণ্টা আগে চুলে নারকেল তেল ম্যাসাজ করে নিন। তেল আলতো করে চুলে এবং মাথার ত্বকে ম্যাসাজ করতে হবে। আমলাসমৃদ্ধ নারকেল তেল চুলের জন্য ভালো। যুগ যুগ ধরে চুলের যত্নে আয়ুর্বেদিক আমলা ব্যবহার হয়ে আসছে। আমলায় আছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ভিটামিন ‘সি’, অ্যামাইনো এসিড, ফ্ল্যাভোনোইড ও ট্যানিন। এসব উপাদান অকালে চুল পেকে যাওয়া থেকে রক্ষা করে। চুল পড়া বন্ধ করে। যাঁদের মাথায় খুশকি তাঁরা আমলাযুক্ত নারকেল তেল ব্যবহার করুন। এটা খুশকি দূর করে মাথার ত্বক রাখে পরিষ্কার।

 



মন্তব্য