kalerkantho


রূপচর্চা

মেকাপ ছাড়াই সুন্দর

মারজান ইমু    

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



মেকাপ

ছাড়াই

সুন্দর

সুন্দর পরিপাটি দেখাতে মেকআপের অবদান স্বীকার করতেই হবে। কিন্তু মেকআপ আবশ্যকীয় নয়। নিজেকে সুন্দর দেখাতে সবচেয়ে জরুরি হলো আত্মবিশ্বাস। দৈনন্দিন কিছু বিষয় চর্চা করলেই ত্বক স্বাভাবিকভাবেই থাকবে সুন্দর। পরামর্শ দিলেন বিন্দিয়া এক্সক্লুসিভের রূপবিশেষজ্ঞ শারমিন কচি।

 

ডেইলি রুটিন

জন্মগত সৌন্দর্যকে যত্ন করে সুন্দর রাখতে পারাই সৌন্দর্যের সফলতা। ত্বকের সুস্থতায় এই মৌসুমে সকালে ও রাতে দিনে দুবার গোসল করা ভালো। গোসলের জন্য ময়েশ্চারাইজারযুক্ত হালকা সাবান বা বডি ওয়াশ বেছে নিন। গরমেও গোসলের পর পাউডারের বদলে ত্বকে ময়েশ্চারাইজার লাগান। প্রতিদিনই ত্বকে মৃতকোষ জমতে থাকে যার সবটুকু ফেসওয়াশ দূর করতে পারে না। ফলাফল কালচে, অনুজ্জ্বল, নিষ্প্রাণ ত্বক। তাই সপ্তাহে এক দিন স্ক্রাবার ব্যবহার করুন। স্ক্রাবিংয়ের আগে গরম পানির ভাপ নিলে জমে থাকা মৃত কোষ ও লোমকূপের ভেতরে জমে থাকা ময়লা দূর হবে। ত্বক উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। এ ছাড়া ব্ল্যাক হেডস ও হোয়াইট হেডসের সমস্যাও থাকবে না। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন ফেস মাস্ক ব্যবহার করলে ত্বকের স্বাভাবিক সৌন্দর্য বজায় থাকবে। ত্বকের ধরন অনুযায়ী পছন্দমতো যেকোনো মাস্ক নিয়মিত ব্যবহার করতে হবে। ফেস মাস্ক লাগানোর জন্য সন্ধ্যা বা রাত উপযুক্ত সময়। ছুটির দিনে বাইরে বের না হলে দিনের বেলায়ও লাগাতে পারেন। ফেস মাস্ক লাগানোর পর মুখ ধুয়ে টোনার এবং তারপর ময়েশ্চারাইজার লাগাতে ভুলবেন না। রাতে ছয় থেকে আট ঘণ্টা ঘুমের বিকল্প নেই। ঘুমের সময়ে শরীরের সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ক্লান্তি দূর করে পুনর্গঠিত হয়। কটন বাডে ক্যাস্টর অয়েল লাগিয়ে রাতে শোবার আগে চোখের পাপড়ি ও আইব্রোতে লাগিয়ে সারা রাত রাখুন। আলাদা করে মাশকারা বা আইব্রো পেনসিল ব্যবহার করতে হবে না। রোদে পুড়ে ত্বক কালচে হয়ে যায়। নষ্ট হয় ত্বকের স্বাভাবিক সৌন্দর্য। তাই সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হওয়াই ভালো। রোদে বের হতে হলে সানস্ক্রিন বা সানব্লক ব্যবহার করতে হবে। স্পর্শকাতর ত্বকের জন্য মেডিকেটেড সানস্ক্রিন এবং  তৈলাক্ত ত্বকের জন্য তেলবিহীন সানস্ক্রিনই ব্যবহার করুন। দীর্ঘ সময় রোদে থাকলে প্রতি তিন ঘণ্টা পর ওয়েট টিস্যু দিয়ে ত্বক মুছে আবার সানস্ক্রিন লাগাতে হবে।

 

খাবারদাবার

পেট পরিষ্কার না থাকা ত্বকের নানাবিধ সমস্যার মূল কারণ। সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে এক গ্লাস কুসুম গরম পানি পান করুন। কোষ্ঠকাঠিন্য থাকলে খালিপেটে নিয়মিত ইসবগুলের ভুসি, চিরতার পানি, নিমপাতার বড়ি খেতে পারেন। পেটও পরিষ্কার থাকবে আর গরমে ত্বকও ভালো থাকবে। প্রতিদিন রাতে শোবার আগে এক গ্লাস কুসুম গরম দুধে এক চিমটি হলুদ গুঁড়া মিশিয়ে খেলে ভেতর থেকে ত্বকের জেল্লা বাড়বে। খাবারের পাশাপাশি নিজেকে ফিট রাখতে নিয়মিত আধা ঘণ্টা ব্যায়াম করুন। ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ, জিম বা যোগ ব্যায়াম, যেটা সুবিধা হবে তাই করুন। হাঁটাও বেশ ভালো ব্যায়াম। দৈনিক আধা ঘণ্টা হাঁটলে শরীর সুস্থ থাকবে, ঘুম ভালো হবে, আত্মবিশ্বাস বাড়বে। 

সাজগোজ

বাইরে বের হওয়ার আগে মুখ ধুয়ে ভালো করে মুছে নিন। এরপর ভালো মানের ময়েশ্চারাইজারযুক্ত ডে ক্রিম লাগান। এরপর লাগান ত্বকের সঙ্গে মানানসই সানস্ক্রিন। সবশেষে হালকা একটু পাউডার বুলিয়ে নিতে পারেন। ত্বক সতেজ ও উজ্জ্বল দেখাবে। ত্বক  তৈলাক্ত হলে মুখ ধোয়ার পর এক টুকরা বরফ ঘষে নেবেন ত্বকে। আইব্রো পেনসিল ব্যবহার না করতে চাইলে নিয়ম করে আইব্রো প্লাক করে শেপ ঠিক করে নিন। ঠোঁটে লিপস্টিকের বদলে লিপগ্লস বা লিপবাম লাগান। ঠোঁটও ভালো থাকবে আর দেখতে সতেজ দেখাবে।



মন্তব্য