kalerkantho


রূপচর্চা

দিঘল চুলের জন্য

ধুলা-দূষণের নগরীতে চুল বড় করা সহজ নয়। বড় চুল আলাদা যত্ন ও মনোযোগের দাবিদার। যাঁদের চুল বড় অথবা যাঁরা চুল বড় করতে চান, তাঁদের গাইডলাইন দিয়েছেন বিন্দিয়া বিউটি পার্লারের রূপবিশেষজ্ঞ শারমিন কচি

৬ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



দিঘল চুলের জন্য

চুল পরিষ্কার

বড় চুল পরিষ্কার করা বেশ কষ্টসাধ্য বলে অনেকেই নিয়মিত চুল পরিষ্কারে অবহেলা করেন। চুলের জন্য এটা বেশ ক্ষতিকর। প্রতিদিন বাইরে যেতে না হলে এক দিন পরপর চুলে শ্যাম্পু করা যেতে পারে। বাইরে গেলে নিয়ম মেনে প্রতিদিনই চুলে শ্যাম্পু করা জরুরি। শ্যাম্পু করতে হবে সঠিক নিয়ম মেনে। গোসলের আগে চুল আঁচড়ে জট ছাড়িয়ে নিন। সরাসরি শ্যাম্পু চুলে না দিয়ে একটি বাটিতে খানিকটা পানি মিশিয়ে ঘনত্ব কমিয়ে নিন। স্কাল্পসহ সব চুলে শ্যাম্পু মেখে আঙুলের ডগা দিয়ে হালকাভাবে ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন। ম্যাসাজের সময় হাতে অল্প করে পানি দিয়ে চুলে ফেনা করতে হবে। চুলে তেল দিলে দ্বিতীয় দফায় শ্যাম্পু করুন। শ্যাম্পুর পর চুলের ধরন বুঝে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। চুলে কন্ডিশনার লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেলুন। ধোয়া হয়ে গেলে নরম তোয়ালে জড়িয়ে চুলের পানি নিংড়ে নিতে হবে।

 

চুল আঁচড়ানো

দিঘল চুলের সুরক্ষায় যত্নবান হতে হবে চুল আঁচড়ানোর ক্ষেত্রেও। কোনো অবস্থাতেই ভেজা চুল আঁচড়ানো যাবে না। হেয়ার ড্রায়ারের গরম বাতাস চুলের জন্য বেশ ক্ষতিকর। তাই ফ্যানের ঠাণ্ডা অথবা ঠাণ্ডা বাতাস বের হয়—এমন হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকাতে হবে। চুল আঁচড়াতে মোটা দাঁতের চিরুনি অথবা ব্রাশ ব্যবহার করুন। চিরুনির দাঁতের ডগা যেন ধারালো না হয় সেদিকেও লক্ষ রাখা জরুরি। প্রতিদিন সকালে ও রাতে দুবার স্বাভাবিকভাবে চুল আঁচড়ানোর পাশাপাশি সব চুল উল্টে পেছন থেকে সামনের দিকে আঁচড়ান। স্কাল্পের রক্ত সঞ্চালন ভালো হবে।    

 

বেঁধে রাখুন

বড় চুলে জট বেঁধে যায় সহজেই। আর চুল ভাঙার অন্যতম কারণ জট। তাই যতটা সম্ভব চুল বেঁধে রাখা নিরাপদ। চুল বাঁধার সময় খেয়াল রাখতে হবে চুলের গোড়ায় যেন টান না পড়ে। অর্থাৎ খুব শক্ত করে চুল বাঁধলে চুলের গোড়া নরম হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। বড় চুলে বেণি বা খোঁপা করতে পারেন। দেখতে যেমন ভালো দেখাবে, চুলও থাকবে সুরক্ষিত। সচেতন থাকার পরেও শ্যাম্পুর পর বা যেকোনো সময় চুলে জট হতে পারে। সে ক্ষেত্রে মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে হালকাভাবে চুলের আগা থেকে জট ছাড়ানো শুরু করুন। চুল কম ভাঙবে।

 

যত্নআত্তি

নির্দিষ্ট কোনো সমস্যা না থাকলে দিঘল চুলের যত্নে আলাদা করে তেমন কোনো যত্নের প্রয়োজন নেই বলে মনে করেন রূপবিশেষজ্ঞ শারমিন কচি। তিনি জানান, সপ্তাহে তিন দিন চুলের গোড়ায় হট অয়েল ম্যাসাজ করা আর এক দিন হেয়ার প্যাক ব্যবহারই যথেষ্ট।



মন্তব্য