kalerkantho


ব্যায়াম

অফিসে বসে ব্যায়াম

কর্মজীবী মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখতে সহজ ও স্বল্প সময়ে কী ব্যায়াম করতে পারেন —জানালেন কমব্যাট জিমের মেয়েদের শাখার প্রশিক্ষক শামীমা আক্তার তুলি

১৭ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০



অফিসে বসে ব্যায়াম

কর্মজীবীরা ব্যস্ততার কারণে ব্যায়াম করতে সময় পান না। অথচ আট মিনিট ব্যায়াম করতে পারলেই যথেষ্ট।

তিন সপ্তাহেই ফল পাওয়া যায়। দুপুরের খাবার সময়ের বিরতিতে  এই ব্যায়াম করা যায়। ওজন কমানো, মাসল টোনিং, ফিট থাকা, হাড়ের সক্ষমতা বাড়ানো সর্বোপরি আত্মবিশ্বাস বাড়াতে ব্যায়ামের বিকল্প নেই।

কিভাবে করবেন

 

হাত, বুক ও পিঠ

অফিসের  চেয়ারে বসে হাতের  চেটো বুকের কাছে আনুন। কনুই শরীরের দুই পাশে থাকবে বাঁকানো অবস্থায়। এভাবে এক হাতের চেটো দিয়ে আরেক হাতের চেটো চেপে ধরুন। এই অবস্থায় নিঃশ্বাস ছাড়বেন। নিঃশ্বাস নিতে নিতে হাতের চেটো আলগা করবেন।

পা

♦   চেয়ারে বসে একটা পা মাটি থেকে ছয় ইঞ্চি ওপরে তুলুন।

এ অবস্থায় আধ-এক ইঞ্চি পা ওঠানো-নামানো করুন। স্বাভাবিক  ভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিন। খেয়াল রাখবেন শরীরের ওপরের অংশ যেন নড়াচড়া না করে।

♦   একই অবস্থায় থেকে আবার পা দুই দিকে তিন-চার ইঞ্চি নাড়াচাড়া করুন। এতে ইনার ও আউটার থাই মাসলের ব্যায়াম হবে।

♦   দাঁড়িয়ে থাকার সময়, চেয়ারের পিছনটায় বা  টেবিলে ভর দিয়ে দাঁড়ান। এবার পায়ের আঙুলের ওপর ভর দিয়ে শরীর ওপরের দিকে তুলুন আর নিচের দিকে নামান। তবে দুই ক্ষেত্রেই গোড়ালি মাটি থেকে সামান্য ওপরে থাকবে। ওপরের দিকে ওঠার সময় শ্বাস ছাড়বেন আর নিচে নামার সময় নিঃশ্বাস নেবেন।

 

অ্যাবস

চেয়ারের সামনের দিকে বসুন। পা দুটি কিছুটা বাঁকিয়ে রাখবেন। খেয়াল রাখবেন, দুই পায়ের মধ্যে যেন যথেষ্ট দূরত্ব থাকে। এ অবস্থায় সামনের দিকে ঝুঁকুন। খেয়াল রাখবেন শিরদাঁড়া যেন ধনুকের আকারে থাকে আর থুতনি বুকের কাছাকাছি নামানো হয়। এভাবে ১০ গুনুন। তারপর সোজা হয়ে বিশ্রাম নিন।

 

জেনে রাখুন

প্রথম প্রথম ব্যায়ামগুলো মোট আট-দশবার করুন। অভ্যস্ত হয়ে গেলে ধীরে ধীরে বাড়াবেন।

মনে রাখবেন সঠিক ব্রিদিং প্যাটার্ন খুব গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্রাম করার সময় শ্বাস নেবেন। আর ব্যায়ামের সবচেয়ে কঠিন অবস্থায় শ্বাস ছাড়বেন। একই সঙ্গে সঠিক ডায়েট মেনে চলতে হবে। জোর করে ব্যায়াম করবেন না। নিজের সামর্থ্য বুঝে ব্যায়াম করুন।


মন্তব্য