kalerkantho


খোঁজখবর

লন্ড্রি যাবে বাড়িতেই

পোশাক-আশাক থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য—সবই এখন ঘরে বসেই কেনা যায়। ঢাকার কয়েকটি লন্ড্রি এখন পোশাক ধোলাই ও ইস্ত্রি সম্পন্ন করে পৌঁছে দিচ্ছে গ্রাহকের কাছে। লিখেছেন পিন্টু রঞ্জন অর্ক

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



লন্ড্রি যাবে বাড়িতেই

ছবি : ওয়াশআউট

‘বাসায় কাপড় ধোয়া যে কি ঝামেলা! ঠিকমতো পরিষ্কার না হওয়া আর কাপড়ের রং ঝলসানোর সমস্যা তো আছেই। তার ওপর আয়রন করার জন্য লন্ড্রি দোকানে দৌড়াতে হতো। কাপড় শুকানোর ঝামেলাও কম নয়। ঘরের মধ্যে ফ্যান চালিয়ে কতক্ষণই আর কাপড় শুকানো যায়! এখন অবশ্য ঝুটঝামেলা আর নেই। ফোনে ফরমাশ দিই। লন্ড্রির কর্মীরা এসে কাপড় নিয়ে যায়। সাফসুতরো করে সময়মতো দিয়েও যায়। ’ বলছিলেন রাজধানীর মিরপুরের বাসিন্দা জেসমিনা সুরভী। কয়েক মাস ধরে লন্ড্রির হোম সার্ভিস নিচ্ছেন তিনি।

ঢাকার কয়েকটি লন্ড্রি এখন পোশাক ধোলাই ও ইস্ত্রি করে পৌঁছে দিচ্ছে গ্রাহকের ঘরে।

বাসায় কাপড় ধোয়া ও শুকানো বেশ ঝামেলার কাজ।

ভেজা কাপড় মেলে দেওয়ার জায়গার অভাবে অনেকে ঘরের মধ্যেই তার টানিয়ে ফ্যান চালিয়ে কাপড় শুকান। আবার ঠিকমতো পরিষ্কার করা, কাপড়ের রং ঠিক রাখা—এসবও বেশ শ্রম ও সময়সাধ্য কাজ। এসব ঝুটঝামেলা থেকে মুক্তি দিতেই হোম সার্ভিসের ব্যবস্থা করেছে লন্ড্রি সেবা প্রদানকারী এসব প্রতিষ্ঠান।

উত্তরায় লন্ড্রি সেবা দিচ্ছে ওয়াশবিডি ড্রাই ক্লিনিং অ্যান্ড লন্ড্রি সার্ভিস। প্রতিষ্ঠানটির মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ নাহিদ নেওয়াজ বলেন, ‘ওয়াশের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ পাঁচ দিনে ডেলিভারি দেওয়া হয়। সাধারণ শার্ট, পাঞ্জাবি ইস্ত্রিতে প্রতিটির খরচ ৮ টাকা। আর ওয়াশ ৫০ টাকা করে। সাধারণ শাড়ি ২০০ টাকা। আর জামদানির খরচ ২৫০ টাকা। ’

‘ওয়াশ আউট লন্ড্রি সার্ভিস’ যাত্রা শুরু করে ২০১৫ সালে। ঢাকা ছাড়াও নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী ও সিলেটে সেবা দিয়ে থাকে প্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠানটির জেনারেল ম্যানেজার সোহেল আলম জানালেন, ‘এখন ওয়াশ আউটের শাখা আছে ৩৬টি। কর্মী ৩০০ জন। মোটরসাইকেলে করে বাড়ি বাড়ি গিয়ে কাপড় সংগ্রহ ও পৌঁছে দেওয়ার কাজটি করেন তাঁরা। সর্বনিম্ন দুই দিনের মধ্যে ডেলিভারি দেওয়া হয়। বিনা মূল্যে হোম সার্ভিসের সুবিধা আছে। এর জন্য কলসেন্টারে যোগাযোগ করে নিবন্ধন করতে হয়। সর্বনিম্ন পাঁচটি কাপড় হলে প্রতিষ্ঠানের কর্মীরা বাসায় এসে কাপড় নিয়ে যান। এখানে শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবি ও পাজামা সাধারণ ধোয়া থেকে ইস্ত্রি করা পর্যন্ত খরচ প্রতিটি ৬০ টাকা। শাড়ি ১২০ টাকা থেকে শুরু। ’

মিরপুর এলাকায় বাড়ি থেকে কাপড় নিয়ে আসা ও পৌঁছে দেওয়ার সেবা দিচ্ছে ‘এক্সপার্ট ক্লিন লন্ড্রি’। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে যাত্রা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। তাদের ফেসবুক পেজে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ‘এখন কর্মী আছে ১০ জন। এখন পর্যন্ত গ্রাহক ৬০০ জনেরও বেশি। ফ্রি হোম ডেলিভারি দিয়ে থাকে তারা। ’

বসুন্ধরা ও বারিধারা এলাকায় লন্ড্রির হোম সার্ভিস সুবিধা দিচ্ছে ‘সব সময় লন্ড্রি সার্ভিস’। গেল বছরের শুরুর দিকে হোম সার্ভিস সেবার যাত্রা শুরু। ছয়জন কর্মী বাড়ি গিয়ে কাপড় নিয়ে আসেন। এ জন্য গ্রাহকদের বাড়তি  কোনো খরচ দিতে হচ্ছে না। এখানে শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবি ও পায়জামা সাধারণ ধোয়া থেকে ইস্ত্রি করা পর্যন্ত খরচ প্রতিটি ৩৫ টাকা। শাড়ি ১৮০ টাকা থেকে শুরু।

মোহাম্মদপুরের বাসিন্দা গাজী মোহাম্মদ আজিজুর রহমান কয়েক মাস ধরে লন্ড্রি সার্ভিস নিচ্ছেন। জানালেন, ‘আমার সময় বেঁচে যাচ্ছে। লন্ড্রিতে কাপড় দিয়ে আসা, নিয়ে আসার ঝামেলা হচ্ছে না। খরচও অন্যান্য লন্ড্রির মতো। এসব প্রতিষ্ঠানে কাপড় ধোয়ার ক্ষেত্রে বিদেশ থেকে আমদানি করা তরল ডিটারজেন্ট আর আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। দৈনিক ব্যবহৃত কাপড় ঘরে না ধুয়ে একের ভেতর সব অর্থাৎ ধোয়া, শুকানো ও ইস্ত্রি করা একসঙ্গে নিয়ে আসতে চেষ্টা করছে প্রতিষ্ঠানগুলো।

 

হোম সার্ভিস দেয়—এমন কয়েকটি লন্ড্রির ফেসবুক ঠিকানা

ওয়াশ আউট লন্ড্রি সার্ভিস

https://www.facebook.com/washoutbd

ব্যান্ডবক্সবিডি

https://www.facebook.com/bandboxbd/

ওয়াশবিডি

https://www.facebook.com/washbdcom/

এক্সপার্ট ক্লিন লন্ড্রি

https://www.facebook.com/excl360/

আরবান লন্ড্রি

https://www.facebook.com/urbanlaundrybd


মন্তব্য