kalerkantho


রূপচর্চা

চুল ভালো রাখতে করণীয়

রুক্ষতা, চুল পড়া, ডগা ফেটে যাওয়া, খুশকিসহ নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় আমাদের। এসব সমস্যা সমাধানে ঘরোয়া যত্নের পরামর্শ দিলেন রূপবিশেষজ্ঞ আমিনা হক

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



চুল ভালো রাখতে করণীয়

রুক্ষ চুল হলে

দুই ফোঁটা ভেজিটেবল অয়েল বা সূর্যমুখী তেল নিয়ে স্ক্যাল্পে আলতো করে ম্যাসাজ করে দিন। এবার পুরো চুলে ও ডগায়ও একইভাবে লাগান। অথবা একটি বোতলে ক্রিমযুক্ত কন্ডিশনার ও পানি মিশিয়ে রেখে দিন। চুলে এই মিশ্রণটা স্প্রে করুন। এরপর ভালোভাবে চুল আঁচড়ে নিন।

চুলের রুক্ষতা কমাতে চুলে ডিপ কন্ডিশনিং করতে পারেন। ১টি ডিম, ১ টেবিল চামচ ক্যাস্টর অয়েল, ১টি লেবুর রস, ১ চা চামচ গ্লিসারিন বা মধু একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে ঢেকে রাখুন এক ঘণ্টা। এরপর শ্যাম্পু করে নিন। খুব গরম পানিতে চুল ধোবেন না। শ্যাম্পুর পর ভেজা চুলে একটা টাওয়াল জড়িয়ে রাখুন।

এতে চুলের অতিরিক্ত পানি শুষে যাবে। চুল ঘষে ঘষে মুছবেন না, চুল ফেটে যায়। যদি হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করার অভ্যাস থাকে তাহলে বড় দাঁড়ার চিরুনি দিয়ে আগে চুল আঁচড়ে নিন। এরপর চুল কয়েকটি ভাগে ভাগ করে একেকটি ভাগ একেকবার হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে শুকিয়ে নিন। ডাউনওয়ার্ড ডিরেকশনে ড্রায়ার ব্যবহার করুন। চুলের ওপর সরাসরি ড্রায়ার ব্যবহার করলে রুক্ষতা আরো বাড়তে পারে। ড্রায়ার ৩ সে. মি. দূরত্ব রাখুন।

 

চুল পড়লে

খুশকি থেকে চুল পড়ার সমস্যা হয়। খুশকি কমলে চুল পড়াও কমবে। খুশকি কমাতে প্রতিদিন স্ক্যাল্পে নন-অয়েলি হার্বাল হেয়ার টনিক ব্যবহার করুন। চুল কয়েকটি ভাগে ভাগ করে নিয়ে, তুলার বল এই তেলে ভিজিয়ে স্ক্যাল্পে লাগিয়ে রেখে দিন। ম্যাসাজ করার দরকার নেই। সপ্তাহে তিন দিন মাইল্ড হার্বাল শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। কম শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন এবং বেশি করে পানি দিয়ে চুল ধোবেন। শ্যাম্পু করার আধঘণ্টা আগে ২ টেবিল চামচ ভিনেগার নিয়ে স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করতে পারেন। সপ্তাহে এক দিন অলিভ অয়েল গরম করে ম্যাসাজ করলেও উপকার পাবেন। এ ক্ষেত্রে সারা রাত চুলে অলিভ অয়েল রেখে পরদিন সকালে লেবুর রস স্ক্যাল্পে লাগান। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে চুল ধুয়ে নিন।

 

জেনে রাখুন

শুধু রূপচর্চা করলেই হবে না, পাশাপাশি ডায়েটেও পরিবর্তন আনুন। টাটকা ফল, সালাদ, সবজি, দই ও বাদাম খান। ৬ থেকে ৮ গ্লাস পানি অবশ্যই পান করুন। ১ গ্লাস গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে খেতে পারেন। প্রয়োজনে ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ভিটামিন ও মিনারেল সাপ্লিমেন্টও খাওয়া যেতে পারে। এতে চুল পড়া কমবে।


মন্তব্য