kalerkantho


গয়নায় চাই নতুনত্ব

রঙিন পোশাকের সঙ্গে গয়না হওয়া চাই মনমতো। ফাগুনের গয়নার খোঁজখবর জানালেন ,লিনা দিলরুবা শারমিন

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



গয়নায় চাই নতুনত্ব

পুঁতি

লহরি পুঁতির মালার আলাদা কদর এখনো আছে। হাল ফ্যাশনে সিগনেচার কালেকশন, নামি ব্র্যান্ড থেকে ননব্র্যান্ড বা স্ট্রিট ফ্যাশন—সবখানেই দেখা মিলবে পুঁতির মালা।

ছোট থেকে বড় বিভিন্ন আকারের পুঁতির লহরি মালা পাবেন। এবার তিন বা চার লহরের মালার সঙ্গে মেটালের রিং বা ছোট নকশার লকেট সৌন্দর্য বাড়াচ্ছে। ছোট পুঁতির থেকে বড় পুঁতি গেঁথে কিংবা বিভিন্ন রঙের পুঁতির মিশেলে  তৈরি হয়েছে এবারকার ফাল্গুনের গয়না। বৈচিত্র্য আনতে লকেটের নকশায় পুঁতির সঙ্গে কড়ি, রুদ্রাক্ষ, কাঠ যোগ হয়েছে। নেকলেস, মালা, লকেট, ঝুমকো, দুল, টপ থেকে শুরু করে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে পুঁতির মুকুট, টায়রা, টিকলি, চুড়ি, ব্রেসলেট, পায়েল, মাথার গয়নাও পাবেন।

 

ফুল

বসন্ত বরণে তাজা ফুলের গয়নার প্রচলন বেশি। গাঁদা আর গোলাপ ফুল একটু বেশিই চলে। এখন অর্কিড, পলাশ, গোলাপ, কাঠগোলাপ, কাঁঠালচাঁপা, কসমস, জারবেরাসহ নানা ফুল দিয়ে তৈরি হবে এবারকার ফাল্গুন ও ভালোবাসা দিবসের গয়না, জানালেন বেইলি রোডের ফুলের দোকান অপরাজিতার কর্মী শিমূল বসাক। গেল বছর বসন্ত সাজে কানের দুলে অশোক, শিমুল ফুল দেখা গেছে।

এ ছাড়া বিভিন্ন ফুলের মিশেলে তৈরি মুকুট ও ব্যান্ডেনা বেশ কয়েক বছর ধরেই জনপ্রিয় চুলের সাজে। চায়না বেলির সঙ্গে জারবেরা বা হলুদ গোলাপ দিয়ে লহরি মালার কদরও চোখে পড়ার মতো। স্লিভলেস পোশাকের হাতে বাজুর বিকল্প হিসেবে ফুলের মালাও চলছে।

 

মাটি

মাটির ভারী গয়না এখন নেই। হালকা মাটির গয়নায় এসেছে নানা বৈচিত্র্য। মাছ, পাখি, ফুল, প্রজাপতি নানা মোটিফের মাটির গয়না এসেছে ফাল্গুনে। শাড়ি বা সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে গলায় মাটির লকেট আর কানে ছোট্ট দুল বা ঝুমকা সেট পাবেন। মাটির কানের কোনো কোনো দুল ও লকেটে আলাদা করে পুঁতি দিয়ে ঝালর করা হয়েছে।

 

সুতা আর কাঠ

সুতার সঙ্গে লকেট, কড়ি, শামুক, পাথর ইত্যাদি দিয়ে তৈরি গয়না শাড়ি ও সালোয়ার-কামিজের সঙ্গেই বেশি মানাবে। এক রঙের সুতা থেকে শুরু করে নানা রঙের সুতার মিশেলে তৈরি এসব গয়না। ‘বাটিক ও টাইডাই কাপড়ের গয়নাও এই উৎসবের জন্য বেশ বিক্রি হচ্ছে’ জানালেন পুঁতিকাব্যে ডিজাইনার হ্যাপি খান। এসব ফেব্রিকস গয়নার সঙ্গে নানা ধরনের প্যাঁচওয়ার্কের কাজও আছে। এ ছাড়া সুতার পাশাপাশি কাঠ দিয়ে তৈরি নানা ডিজাইনের দুল, মালা, চুড়ি—এমনকি নূপুরও পরতে পারেন কুর্তি, টপস বা কামিজের সঙ্গে।

 

অন্যান্য

আজকাল নানা ধরনের মেটালের গহনা পাওয়া যায়। ওয়েস্টার্ন পোশাকের সঙ্গে এসব মেটালের গহনা ভালো যায়। এ ছাড়া নানা জাঙ্ক জুয়েলারিও বেশ চলছে, বিশেষ করে টিনদের এ ধরনের গয়নায় আগ্রহ। আছে পাখির পালকের গয়নার সেট। বৈচিত্র্য চাইলে পালকের গয়নাও বেছে নিতে পারেন।


মন্তব্য