kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


টপ স্কার্টে টুইস্ট

কাটে-ছাঁটে নতুনত্ব নিয়ে স্কার্ট ফিরে এসেছে স্বমহিমায়। এ সময়ের আরামদায়ক ও ফ্যাশনেবল স্কার্টের গল্প শোনাচ্ছেন মারজান ইমু

১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



টপ স্কার্টে টুইস্ট

মডেল : মৌসুম,সাজ : পিঙ্ক বিউটি পার্লার,পোশাক : লা রিভ, কে ক্রাফট,সাদাকালো, বৃষ্টিসুতো,ছবি : কাকলী প্রধান

শর্ট স্কার্টের বদলে তরুণীরা পছন্দ করছেন সেমি লং আর ঘেরের এক পাশে কাটা স্কার্ট। একসময় পার্টিতেও স্কার্ট পরা হতো হরহামেশা।

এখন ক্যাজুয়াল ও ফরমাল দুই লুকেই স্কার্ট দেখা যায়। ভারী কাপড়ের স্কার্ট বদলে এখন স্কার্ট বলতেই বোঝায় আরামদায়ক হালকা কাপড়। আর এই গরমে অবশ্যই হালকা সুতি কাপড়কেই প্রাধান্য দিচ্ছেন সবাই। ফ্যাশন হাউস ঘুরে দেখা যায়, স্কার্টের ঝুল লম্বার দিকেই। আর কাপড়ে সুতি ও তাঁতে বোনা কাপড়ের প্রাধান্য রয়েছে। সুতির পাশাপাশি আছে লিলেন ও খাদি। জমকালো স্কার্টে সিল্ক বা মসলিনও ব্যবহূত হচ্ছে সীমিত পরিসরে।

লা রিভের ডিজাইনার মাসিয়াত জাহান বলেন, আমাদের স্কার্টের একটি বড় অংশ পাশ্চাত্য ধাঁচের। পাশ্চাত্য কাটের সঙ্গে দেশীয় নকশার সমন্বয়ে ডিজাইন হয়। এতে থাকছে বৈচিত্র্যময় কাটিং। নিট, ওভেন ও সুতি ফেব্রিক্স ব্যবহার হয়েছে। মৌসুম বদলের কথা মাথায় রেখে একটু গাঢ় রঙের প্রাধান্য বেশি। যেমন—বাদামি, খয়েরি, হালকা সবুজাভ। এ সময় নিতে পারেন সাদা, কালো, গোলাপি, অফহোয়াইট, হালকা লাইলাক রং। উজ্জ্বলও হয়, তবে তা বেশির ভাগ লং স্কার্টের বেলায়। এ ছাড়া পাবেন প্রাকৃতিক রঙের স্কার্ট। এ রঙের কদরও এখন বেশ। লং স্কার্টের জনপ্রিয়তা মাথায় রাখা হয়েছে ডিজাইনে। কখনো পেছন থেকে সামনের অংশ একটু নৌকার ছইয়ের আদলে কাট দিয়ে বৈচিত্র্য আনা হয়েছে।

 

ডিজাইন

ঘের দেওয়া, টাইডাই, ভেজিটেবল ডাই, ব্লক আর সুতার কাজ দেখা যাচ্ছে স্কার্টের নকশায়। কয়েক লেয়ার কাপড়ের ডিজাইনের সঙ্গে এমব্রয়ডারি নকশা আর ফিতা দেওয়া স্কার্ট পাবেন। চাইলে ফিতাটা দিয়ে থামির মতো পেঁচিয়ে এবং এক পাশে বেঁধেও পরা যাবে এ স্কার্ট। স্কার্টগুলোতে নতুনত্ব আনতে সিকুইন, পুঁতি, লেসের নানা ধরনের ডিজাইন দেখা যায়। ক্রুস কাঁটা, কাঁথাফোঁড় ও এমব্রয়ডারির স্কার্টগুলোও নজরকাড়া। স্ট্রেট স্কার্ট ও এ লাইন স্কার্টের চাহিদাও কম নয়। ট্রাইবাল মোটিফ ও ক্ল্যাসিক স্কার্টে লেস ও ডিজাইন পাড় বসিয়ে নতুনত্ব আনা হয়েছে। ফ্যাশন হাউস ড্রেসিডেলের প্রধান নির্বাহী মায়া রহমান জানান, ‘ড্রেসিডেল সুতি কাপড়ের মধ্যে দুই ধরনের স্কার্ট করে। মাছের মতো ওপর থেকে চাপা হয়ে নিচে ঢোলা এবং ঘেরে বেশি হলে তাকে বলে ফিশ স্কার্ট, আবার ঢোলের মতো এক ধরনের ঢোলা স্কার্ট ডিজাইন করে তারা। ’

 

কাট-ছাঁট

স্কার্টের কাটিং প্যাটার্নেও এসেছে বৈচিত্র্য। এর মধ্যে এখন ট্রেন্ডি সামনে-পেছনে অসমান কাট ও বেশি ঘেরের কাটের স্কার্ট। আরো চলছে এ কাট, রুমাল ছাঁট, সারকুলার কাট, হাফ সারকুলার কাট ও টায়ার কাট। ঘের দেওয়া কুঁচিয়াল স্কার্ট তরুণীদের পছন্দের শীর্ষে। ফ্লোর টাচ স্কার্ট—অর্থাৎ পায়ের গোড়ালি ছাড়ানো দৈর্ঘ্যের স্কার্ট পার্টির জন্য উপযুক্ত। পাশাপাশি থ্রি-কোয়ার্টার—অর্থাৎ গোড়ালি থেকে কিছুটা কাটা স্কার্টগুলোও এখন খুব চলছে। তাঁত, সুতি, লিলেন, ভিসকোস ও ক্যাশমিলান কাপড়েই এগুলো তৈরি করা হচ্ছে। কখনো এক স্কার্টের একাধিক কাপড়ের ব্যবহার ফিউশন ডিজাইন হচ্ছে।

 

 

টপস না কামিজ

স্কার্টের বৈচিত্র্য এখন ওপরের অংশে—অর্থাৎ টপসে। গতানুগতিক টপসের চেয়ে স্কার্টের টপসে ভিন্নতা এসেছে বেশ খানিকটা। লং স্কার্টের সঙ্গে মিলিয়ে এখন টপসও লং হয়ে গেছে। টপসের বটম লাইনেও এসেছে বৈচিত্র্য। টপসের ডিজাইনে বডিতে ফিটিং প্যাটার্নই দেখা যায়। বডি কাটিংয়ে একটু ঢিলেঢালা, কার্ভ স্লিভ, বেল স্লিভ উল্লেখযোগ্য। নেক লাইনেও পরিবর্তন দেখা যায়। সেমি বোট নেক, স্কয়ার, নেকে এমব্রয়ডারি, প্রিন্টের কাজ এবং বডিতে হালকা নকশার কাজ টপসের ট্রেন্ড। স্কার্টের টপসে বেশি নতুনত্ব এনেছে নিচের অংশে, অর্থাৎ বটমে। এ লাইন প্যাটার্নের পাশাপাশি ফ্লেয়ার, বোট, ভি শেপের ব্যবহার লক্ষণীয়। ফ্যাশন ডিজাইনার লিপি খন্দকার বললেন, ‘স্কার্ট একরঙা হলেই ভালো। টপস বাহারি রঙের নেওয়া চাই। স্লিভলেস, ছোট হাতা, ম্যাগি কিংবা থ্রি কোয়ার্টার—যেকোনো ধরনের হাতার টপসের সঙ্গে লং বা ঘের দেওয়া স্কার্ট মানায়। চাইলে টি-শার্টের সঙ্গেও স্কার্ট পরা যায়। হাঁটুর নিচ পর্যন্ত স্কার্টগুলোর সঙ্গে টিউনিকের মতো টপগুলো মানায়। কোমরে নানা ধরনের কাপড় কিংবা চামড়ার বেল্ট পরতে পারেন। ’

 

এই সময়ের রং

হালকা ও উজ্জ্বল রঙের স্কার্টই এ সময়ে বেশি মানানসই।   তবে আসছে শীত মাথায় রেখে একটু ডিপ, ডার্ক রং বেছে নেওয়া যেতে পারে। মেরুন, পার্পেল, নেভিব্লু, সিগ্রিন, বাদামিসহ ইচ্ছামতো রং। চাইলে টপস আর স্কার্টে কনট্র্যাস্ট করে রঙের সামঞ্জস্য আনতে পারেন। উজ্জ্বল রঙের ফ্লোরাল প্রিন্টের স্কার্টও বেশ মানাবে এই আবহাওয়ায়। তবে অবশ্যই সঙ্গে টপস চাই একরঙা।

 

পাবেন যেথায়

স্কার্ট পাবেন আড়ং, কে ক্রাফট, লা রিভ, সাদাকালো, সিকোসো, আইকনিক ফ্যাশন গ্যারেজ, জেন্টল পার্ক, মুমু মারিয়া, রঙ বাংলাদেশ, ভায়োলা, আনোখি, চন্দন, রিলাস, ক্লোরাল কোসেটসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসের শোরুমে।

 

 

 


মন্তব্য