kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রূপচর্চা

ঠোঁট থাক ঠিকঠাক

ঠোঁটের ত্বক অনেক বেশি পাতলা ও নাজুক। তাই কিভাবে যত্ন নিলে ঠোঁট নরম ও প্রাণবন্ত থাকবে তা জানালেন নভীন’স বিউটি স্যালনের আমীনা হক

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ঠোঁট থাক ঠিকঠাক

♦   রোদের ক্ষতিকর রশ্মি ঠোঁটের ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক করে তোলে। তাই বাইরে বের হওয়ার আগে এসপিএফযুক্ত লিপবাম ব্যবহার করুন।

এতে ঠোঁটের স্বাভাবিক আর্দ্রতা ঠিক থাকবে।

♦    সপ্তাহে একবার ঠোঁট স্ক্র্যাব করুন। এতে ঠোঁটের ওপর জমে থাকা মরা চামড়া দূর হবে। ঠোঁটের নির্জীবভাব কাটবে। কেনা লিপস্ক্র্যাব অথবা ঘরে লিপস্ক্র্যাব বানিয়ে নিতে পারেন। এ ক্ষেত্রে ব্রাউন সুগার, মধু, অলিভ অয়েল সমপরিমাণ একত্রে মিশিয়ে নিন। বানানো মিশ্রণ হাতের আঙুলের সাহায্যে হালকাভাবে ঠোঁটে দুই মিনিট ম্যাসাজ করুন। জোরে ঘষতে যাবেন না। ঠোঁটের ত্বক অনেক পাতলা ও নমনীয়। ম্যাসাজের পর ভেজা পাতলা কাপড় দিয়ে ঠোঁট মুছে ফেলুন। ঠোঁট কোমল হবে।

♦    স্ক্র্যাবিংয়ের সঙ্গে সঙ্গে ঠোঁটের ময়েশ্চারাইজারও জরুরি; ঠোঁটের আর্দ্রতা ধরে রাখতে লিপবাম ব্যবহার করতে পারেন। এ ছাড়া অলিভ অয়েলও ব্যবহার করা যায়। নিয়মিত ব্যবহারে ঠোঁট নরম ও সজীব থাকবে।

♦    ঠোঁটের ত্বকের সজীবতা ধরে রাখতে প্রচুর পানি পান করুন। ঠোঁট ফাটার অন্যতম কারণ পানি কম খাওয়া।

♦    ঠোঁটের কালচে ভাব দূর করতে প্রতি রাতে ঠোঁটের ওপর বিটের রস লাগিয়ে রাখুন। এক সপ্তাহ ব্যবহারে দাগ চলে যাবে।

♦    ঠোঁট কামড়ানোর অভ্যাস থাকলে বাদ দিতে হবে। এতে দীর্ঘস্থায়ী দাগ পড়ে।

♦    যাঁদের ঠোঁটের ধরন শুষ্ক, তাঁরা ম্যাট ধরনের লিপস্টিক ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। এতে ঠোঁট তার স্বাভাবিক আর্দ্রতা হারিয়ে আরো বেশি শুষ্ক হয়। ফলে ঠোঁট ফাটা সমস্যা দেখা দেয়।

♦    এ ছাড়া শুষ্ক ঠোঁটের অধিকারীরা হালকা শেডের গ্লিসারিনসমৃদ্ধ লিপস্টিক ব্যবহার করুন। কারণ ডার্ক শেডের লিপস্টিক শুষ্ক ঠোঁটের ফাইন লাইনগুলো আরো বেশি করে ফুটিয়ে তোলে।

ছবি : সৈয়দ অয়ন


মন্তব্য