kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


গেজেটের পরিচর্যা

উৎসবের আগে ঘর-বাড়ি ঝাড়মোছ করা দীর্ঘদিনের রেওয়াজ। ফেব্রিকস-ফার্নিচারের সঙ্গে গৃহস্থালি গেজেট পরিষ্কার করাও জরুরি। কীভাবে করবেন জানালেন দিলরুবা শারমিন

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



গেজেটের পরিচর্যা

রেফ্রিজারেটর

ঈদের কয়েক দিন আগেই ফ্রিজ পরিষ্কার করে রাখুন। প্রথমে ফ্রিজের বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে নিন।

কয়েক ঘণ্টা পর সব বরফ গলে যাবে। এবার বক্স ও চেম্বার খুলে নিয়ে ভালো করে সাবান-পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। সুতি কাপড় দিয়ে শুকনো করে মুছুন। কুসুম গরম পানিতে ভিনেগার মিশিয়ে ফ্রিজের ভেতরটা ভেজা কাপড় বা স্পঞ্জ দিয়ে ভালো করে মুছে ফেলুন। কিছুক্ষণের জন্য দরজা খুলে রাখুন। তাতে ভেতরের গন্ধ বের হয়ে যাবে। ফ্রিজের বাইরের অংশটা লিকুইড ক্লিনার স্পঞ্জে লাগিয়ে পরিষ্কার করুন। এবার বক্স ও চেম্বার আবার জায়গামতো বসান।

 

মাইক্রোওয়েভ ওভেন

ঈদের সময় মাংস রান্না, গরম বা বেক করার জন্য ওভেন ব্যবহার হয় বেশি। তাই কোরবানির কয়েক দিন আগেই ওভেন পরিষ্কার করুন। হালকা গরম পানি ও লিকুইড ক্লিনার দিয়ে ওভেনের ভেতর পরিষ্কার করে নিন। লেবু বা ভিনেগার মেশানো পানিও ভালো কাজে দেয়। ওভেনের ভেতর দুর্গন্ধ হলে তা খাবারেও প্রভাব ফেলে। কাজ শেষে ওভেনের সুইচ ও প্লাগ বন্ধ রাখুন। কিছুটা সময় দরজা খুলে রাখুন।

যদি গন্ধ হয়ে যায় তাহলে একটি বাটিতে সামান্য লেবুর রস দিয়ে ওভেনটি ৩০ সেকেন্ড চালু করে রাখুন। তারপর বাটি বের করে নিন। দেখবেন গন্ধ থাকবে না। মাইক্রোওয়েভ ওভেনের যত্ন ও ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে ওভেনের সঙ্গেই বই দিয়ে দেওয়া হয়। চাইলে বাজারেও কিনতে পাবেন মাইক্রোওয়েভ ম্যানুয়াল।

 

মিক্সার, ব্লেন্ডার আর জুসার

মসলা পেস্ট করার পর ব্লেন্ডারের জার লিকুইড সাবান দিয়ে ধুয়ে ভালোভাবে শুকিয়ে রাখুন। মিক্সার বা ব্লেন্ডারের জারে মসলার গন্ধ থাকলে কুসুম গরম পানিতে আধা কাপ ভিনেগার দিয়ে জার আধা ঘণ্টা রেখে  দুই মিনিট ব্লেন্ড করে নিন। তারপর সাবান-পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। গন্ধ চলে যাবে।

মসলা বা জুস যা-ই করুন, পরিমাণের দিকে খেয়াল রাখুন। পরিমাণ বেশি হলে মেশিন অন করলে তরল উপচে পড়ে ব্লেন্ডার বা জুসারের কয়েল নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

 

কিমা মেশিন

ঈদের আগেই মেশিনের ব্লেড ও অন্যান্য সরঞ্জাম সাবান-পানি দিয়ে ধুয়ে রাখুন। জীবাণুমুক্ত লিকুইড তুলায় ভিজিয়ে মেশিনের মূল অংশ  পরিষ্কার করুন। জীবাণুমুক্ত করতে আলাদা করা যায়—এমন অংশগুলো প্রথমে সাবান-পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর ১০ মিনিট ফুটন্ত পানিতে রেখে জীবাণুমুক্ত করুন। মূল মেশিনের অংশটিও স্যাভলন পানি বা যেকোনো জীবাণুমুক্ত লিকুইড দিয়ে মুছে তারপর শুকিয়ে তুলে রাখুন।

 

সতর্কতা

 

♦         ফ্রিজ, ওভেন পরিষ্কার করার সময় অবশ্যই বৈদ্যুতিক সংযোগ খুলে নেবেন।

♦          ধারালো কিছু দিয়ে ঘষলে দাগ বসে যেতে পারে।

♦          ভালো করে না মুছে চেম্বার বসাবেন না।

♦          ফ্রিজের বরফ ধারালো কিছুর খোঁচা দিয়ে তুলবেন।

 

মডেল : সুইটি সোমা

ছবি : কাকলী প্রধান


মন্তব্য