kalerkantho


হিসাববিজ্ঞান

প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতা থেকে ১২টি এমসিকিউ থাকবে

১৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতা থেকে ১২টি এমসিকিউ থাকবে

বহু নির্বাচনী প্রশ্ন (এমসিকিউ) :

প্রশ্ন থাকবে ৩০টি। মান ৩০, সময়ও ৩০ মিনিট। প্রতি ১ নম্বরের জন্য সময় পাবে এক মিনিট।

প্রশ্ন থাকবে চার রকম—জ্ঞান স্তর, অনুধাবন স্তর, প্রয়োগ স্তর ও  উচ্চতর দক্ষতার স্তর।

প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতামূলক প্রশ্ন থাকবে সর্বোচ্চ ১২টি। এ ধরনের প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর এক মিনিটে দেওয়া সম্ভব নাও হতে পারে। তাই জ্ঞান ও অনুধাবন স্তরের প্রতিটি উত্তরে এক মিনিটেরও কম সময়ে দেওয়ার চেষ্টা করবে।

বাসায় বহু নির্বাচনী দেখার সময় জ্ঞানমূলক ও অনুধাবনমূলক তথ্যগুলো আয়ত্ত করবে। আর বিভিন্ন অধ্যায়ের অঙ্কগুলোর নিয়ম-কানুন জানা থাকলে প্রয়োগ ও উচ্চতর দক্ষতামূলক বহু নির্বাচনীর উত্তর সহজেই দিতে পারবে।

টেস্ট পেপার থেকে কয়েকটি কলেজের প্রশ্ন নিয়ে বাসায়ই নমুনা পরীক্ষা দাও। তাহলে চূড়ান্ত পরীক্ষায় অনুধাবন ও প্রয়োগমূলকের উত্তর নিয়ে সমস্যায় পড়তে হবে না।

 

সৃজনশীল প্রশ্ন :

ক ও খ বিভাগে সর্বমোট ১১টি প্রশ্ন থাকবে। ক-বিভাগ থেকে ২টি প্রশ্নের (চূড়ান্ত হিসাব) উত্তর দিতে হবে। খ-বিভাগের ৯টি প্রশ্ন থেকে যেকোনো ৫টির উত্তর দিতে হবে। এ ক্ষেত্রে কোন প্রশ্নটির উত্তর প্রথমে লিখবে এবং দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ প্রশ্ন আগেই নির্ধারণ করা ঠিক হবে না। যেমন—ধরো, একতরফা প্রথমে উত্তর দেবে, তারপর হিসাব সমীকরণ উত্তর দেবে—এমনটি আগে থেকেই চিন্তা করবে না। পরীক্ষার হলে প্রশ্ন হাতে পাওয়ার পর সিদ্ধান্ত নেবে কোনটি আগে উত্তর দেবে এবং তারপর কোনটি।    প্রতিটি অধ্যায়ের অঙ্কগুলোর নিয়মাবলির ওপর বেশি জোর দিতে হবে।

যে প্রশ্নের উত্তর লিখবে সেই প্রশ্নের করণীয়গুলো (ক, খ ও গ) বিক্ষিপ্তভাবে করবে না অর্থাৎ ১ নম্বর প্রশ্নের ‘উত্তর (ক)’ এক জায়গায়, এরপর ৫ নম্বর প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পর আবার ১ নম্বর প্রশ্নের ‘উত্তর (গ)’—এভাবে উত্তর করবে না।

 

প্রশ্নের পূর্ণমান ৭০, সময় ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট। প্রতি ১ নম্বরের জন্য সময় ২ মিনিট পাবে।

এ ক্ষেত্রে—

ক-এর জন্য সময় বরাদ্দ ৪ মিনিট।

খ-এর জন্য সময় বরাদ্দ ৮ মিনিট।

এবং গ-এর জন্য সময় বরাদ্দ ৮ মিনিট।

অর্থাৎ একটি প্রশ্নের (১০ নম্বরের জন্য) জন্য মোট ২০ মিনিট সময় হাতে রাখবে।


মন্তব্য