kalerkantho

বিরোধী দলীয় এমপির অভিযোগ

সরকার ডিজিটাল আইনের অপব্যবহার করছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ মার্চ, ২০১৯ ০০:৫০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকার ডিজিটাল আইনের অপব্যবহার করছে

সরকার ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনের অপব্যবহার করছে বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. ফখরুল ইমাম। তিনি বলেছেন, যখন এই আইন প্রণয়ন করা হয়, তখন আমরা বিরোধীতা করেছিলাম। তখন আইনমন্ত্রী আশ্বস্ত করে বলেছিলেন, কোনো নিরীহ মানুষ এই আইনের অপব্যবহারের শিকার হবে না। 

সাংবাদিকরা স্বাধীন ও নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারবে। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, এই আইনকে আজ ব্যক্তি ও গোষ্ঠী স্বার্থে ব্যবহার করা হচ্ছে। এই আইনের কারণে স্বাধীন সাংবাদিকতা হুমকির মুখে।

গতকাল রবিবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাব নিয়ে সাধারণ আলোচনায় অংশ তিনি এ কথা বলেন। এই আইনে আটক সাংবাদিক আবু জাফরের মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে রিপোর্ট করায় আবু জাফর এখন কারাগারে। আমি জানতে চাই আবু জাফর এখন কারাগারে কেন? তাহলে কি দুর্নীতির বিরুদ্ধে কোনো রিপোর্ট করা যাবে না?

তিনি আরো বলেন, ওই সাংবাদিকের লেখা সংবাদের তদন্ত হোক। সত্য-মিথ্যা যাচাই করা হোক। রিপোর্টার যদি ভুল লিখে থাকেন তাহলে তাকে শাস্তি দেওয়া হোক। কিন্তু তার আগেই তাকে কেন কারাগারে পাঠানো হলো। প্রয়োজনে একটি তদন্ত কমিটি গঠনের আহবান জানান তিনি।

আইনমন্ত্রী ও তথ্যমন্ত্রীর প্রতি আহবান জানিয়ে ফখরুল ইমাম বলেন, স্বাধীন সাংবাদিকতা বাধাগ্রস্ত হলে গণতন্ত্র হুমকির মুখে পড়বে। সরকারও ক্ষতিগ্রস্ত হবে। একটি সরকারের পক্ষে সব খবর জানা সম্ভব না। গণমাধ্যম কর্মীরাই প্রকৃত চিত্র তুলে আনে খবরের পাতায়।

তারা যদি বাধাগ্রস্ত হন, ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনের শিকার হন, তারা যদি লিখতে না পারেন, তাহলে রাষ্ট্র ও সমাজের অনেক দুর্নীতির চিত্রই ধামাচাপা পড়ে থাকবে। সরকার কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নিতে পারবেন। দুর্নীতিবাজরা আরো বেপরোয়া হয়ে পড়বে। এতে করে সরকারই ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে দাবি করেন তিনি।

বিরোধী দলীয় ওই সদস্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে। জাতীয় পার্টি কার্যকর বিরোধীদলের ভূমিকা পালনের মধ্য দিয়ে সরকারের ভালো-মন্দের চিত্র জাতীয় সংসদে তুলে ধরবে। সংসদের বাইরেও জাতীয় পার্টি কথা বলছে। তবে রাষ্ট্রপতি তার ভাষণে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে দিক-নির্দেশনা তা সকলের জন্য ভালো হতো বলে তিনি মতামত ব্যক্ত করেন। 

মন্তব্য