kalerkantho


ড. কামাল হোসেন বললেন

রাষ্ট্রক্ষমতা নিয়ে পাগল হওয়ার কিছু নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ আগস্ট, ২০১৮ ০২:৫১



রাষ্ট্রক্ষমতা নিয়ে পাগল হওয়ার কিছু নেই

ড. কামাল হোসেন । ফাইল ছবি

গণফোরাম সভাপতি ও প্রবীণ আইনজ্ঞ ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ক্ষমতার মসনদে বসার জন্য নয়, দেশের মাটি ও মানুষকে রক্ষার জন্য ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়, রাষ্ট্রক্ষমতা নিয়ে পাগল হওয়ার কিছু নেই।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আলোচনাসভায় তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার জ্যেষ্ঠ সদস্য প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর ৮৭তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘কয়লা চুরি, ব্যাংক ডাকাতি, সর্বগ্রাসী দুর্নীতি বন্ধ করে ভোটাধিকার গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় জাতীয় ঐক্য’ শীর্ষক এই আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়।

আলোচনাসভায় কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে ড. কামাল হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীরা ন্যায্য প্রস্তাব নিয়ে রাস্তায় নেমেছে। এই তরুণ সমাজের ওপর আক্রমণ লজ্জার বিষয়। কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের যারা রাজাকারের সন্তান বলে গালি দেয়, তাদের ভর্ত্সনা করে ড. কামাল বলেন, তারা রাজাকারের বাচ্চা নয়, বাংলাদেশের সন্তান।

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক কামাল হোসেন বলেন, যারা আজ মুক্তিযোদ্ধাদের নাম নিয়ে ব্যবসা করে, তারা এ কথা ভুলে গেছে যে মুক্তিযোদ্ধারা কী মানসিকতা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধ করেছে। মুক্তিযোদ্ধারা ব্যবসার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেনি।

ড. কামাল বলেন, বঙ্গবন্ধু, তাজউদ্দীন দেশকে ভোগ করার জন্য জীবন দিয়ে যাননি। কিন্তু তাঁদের দলের নাম ভাঙিয়ে যে জিনিস দেখতে হচ্ছে, এটা বঙ্গবন্ধুকে অপমান করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, ব্যাংক ডাকাতি হচ্ছে, কয়লা চুরি হচ্ছে। মাটিও চুরি হবে। সর্বগ্রাসী দুর্নীতি হচ্ছে। কিন্তু এসব অপরাধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।

আলোচনাসভায় আরো বক্তব্য দেন, প্রকৌশলী শেখ মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, সিপিবি নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্ব্বয়কারী জোনায়েদ সাকী, কোটা সংস্কার আন্দোলনের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজিমুল ইসলাম প্রমুখ।



মন্তব্য