kalerkantho


অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ নেই: রিজভী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ জুলাই, ২০১৮ ১৪:০৮



অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ নেই: রিজভী

আপনার অধীনে জাতীয় নির্বাচন আর নেকড়ের অধীনে নিরীহ প্রাণীর নিরাপত্তা সমান কথা। বর্তমানে দেশে অবাধ সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের কোনো পরিবেশ নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ শুক্রবার নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব। এ সময় তিনি আগের রাতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভায় প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানান।

আগামী নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে এটি ধরে নিয়েই এখন থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে হবে প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, এমন তথ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোথায় পেয়েছেন, আপনি কোন আধ্যাত্মিক ক্ষমতার জোরে জানতে পারলেন যে, আপনার অধীনেই বিএনপি নির্বাচনে আসবে? আপনি তো অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনকে লোহার সিন্দুকে আটকিয়ে রেখেছেন। আর অংশগ্রহণমূলক ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনকে তো আপনি পুলিশের রাইফেলের নলের মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়েছেন।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের টেবিলে যে ৩০০ প্রার্থীর নামের তালিকা আছে বলে উল্লেখ করেছে তাতে মৃত ব্যক্তিদের নাম এলো কিভাবে তা জানতে চেয়ে রিজভী বলেন, তারেকের টেবিলে ৩০০ প্রার্থীর নামের তালিকায় মৃত ব্যক্তিদের নাম এলো কিভাবে? সুতরাং প্রতিবেদনটি আগাগোড়াই মনগড়া ও কাল্পনিক এবং বিএনপির বিরুদ্ধে সরকার ও তাদের এজেন্সিগুলোর ধারাবাহিক চক্রান্ত-ষড়যন্ত্রের নীলনকশায় আরেকটি সংযোজন।

শেখ হাসিনার অধীনে বাংলাদেশে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি বা হবেও না-এমন দাবি করে রিজভী বলেন, ‘নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন হতে হবে। কারাবন্দী চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়াও ভোটে না যাওয়ার ঘোষণা দেন বিনেপি নেতা। বলেন, খালেদা জিয়াকে বন্দী করে রাখা হয়েছে যেন খালেদা জিয়াবিহীন আরেকটি জালভোটের নির্বাচন করে ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখা যায়। প্রধানমন্ত্রীর গতকালের বক্তব্যেও সেরকম ইঙ্গিতই পাওয়া গেছে। কিন্তু পাতানো নির্বাচনের ষড়যন্ত্র কোনো কাজে আসবে না।

 



মন্তব্য