kalerkantho


পুলিশদের প্রতি রিজভী

ফ্যাসিবাদ ও স্বৈরাচারের উপাসক হবেন না

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৪:৫৮



ফ্যাসিবাদ ও স্বৈরাচারের উপাসক হবেন না

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগের পক্ষে অবস্থান নেওয়ায় পুলিশের নিরপেক্ষতা এখন জনগণের কাছে হাস্যকর জায়গায় ঠেকেছে। পুলিশকে দলস্বার্থে ব্যবহার করতে গিয়ে সুকৌশলে পুলিশের মেরুদণ্ড ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। এ বিষয়গুলি নিয়ে আপনাদের চিন্তা-ভাবনা করা দরকার। জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে দাঁড়ালে সুনাম নষ্টের পাশাপাশি প্রতিষ্ঠান ধ্বসে যায়। আপনাদেরকে অনুরোধ করছি- ফ্যাসিবাদ ও স্বৈরাচারের উপাসক হবেন না।

আরো পড়ুন: প্রধান বিচারপতি নিয়োগে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন হয়নি : আইনমন্ত্রী

আজ রবিবার দুপুর পৌনে ১২টায় রাজধানীর নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

রিজভী বলেন, সরকার দুরন্ত গতিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে বেপরোয়া গ্রেপ্তার অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। ঢাকাসহ সারাদেশে বিএনপির নেতাকর্মীদেরকে গোয়েন্দা পুলিশ আকস্মিক ঝাপটা মেরে তাদের আটক করছে। গতকাল লা মেরিডিয়ান হোটেলে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভা চলাকালে ও সভা শেষে বেরিয়ে যাওয়ার পর রাস্তা থেকে ৩৫ জনের অধিক নেতাকর্মীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

আরো পড়ুন: ‘টাকা দিতে না পারলেই শুরু হয় অমানবিক শারীরিক নির্যাতন’

তিনি বলেন, বিরোধী দলের নেতা ও কর্মীদের ওপর নির্যাতন তো দৈনন্দিন ঘটনা, একটি অরাজনৈতিক ও দেশের স্বার্থের পক্ষে সংগঠন তেল-গ্যাস-খনিজসম্পদ ও বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির মিছিলে পুলিশের উন্মত্ত হামলায় অধ্যাপক আনু মুহাম্মদের পা ভেঙে দেওয়াসহ তাদের অসংখ্য বরেণ্য ব্যক্তিকে মারাত্মক আহত করা হয়। সেটিও কেউ ভুলে যায়নি।

রিজভী বরেন, আমি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীসহ পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই-স্বাধীনতা যুদ্ধে আপনাদের অবদান নিঃসন্দেহে অবিস্মরণীয়। ২৫ মার্চের কালোরাত্রে পাক হানাদার বাহিনী প্রথমেই রাজারবাগ পুলিশ লাইন আক্রমণ করে। দেশমাতৃকা রক্ষায় আপনাদের আত্মদান মানুষ এখনও মনে রেখেছে। কিন্তু এই স্বাধীন দেশে বিরোধীদলের ওপর পুলিশের উন্মত্ত হামলা তো মানুষকে সেই পাক হানাদার বাহিনীর নৃশংসতার কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়।


মন্তব্য