kalerkantho


বিএনপি দেশের ১৪০টি রেলস্টেশন বন্ধ করে দেয় : রেলমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ মার্চ, ২০১৭ ১৯:৫১



বিএনপি দেশের ১৪০টি রেলস্টেশন বন্ধ করে দেয় : রেলমন্ত্রী

রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, বিএনপি সরকার দেশের ১৪০টি রেলস্টেশন বন্ধ করে দিয়েছিল। আগামী ৬ মাসের মধ্যে পর্যায়ক্রমে ৮০টি রেলস্টেশন পুনরায় চালু হবে।  
তিনি আজ বৃহস্পতিবার ঘোড়াশাল রেলস্টেশনে দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্ধকৃত ৬০টি রেলস্টেশন আনুষ্ঠানিকভাবে চালুকরণের লক্ষ্যে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
বিএনপি রেলওয়ের ১০ হাজার কর্মচারীকে গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে চাকুরিচ্যুত করে উল্লেখ করে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘তারা ঐতিহ্যবাহী রেল পথকে সংকুচিত করে দিয়েছিল। বিএনপির আমলে দেশের ১৪০টি রেলস্টেশন বন্ধ করে দেওয়া হয়। বাংলাদেশে যতগুলো রেলস্টেশন বন্ধ হয়েছে- সবগুলোই করেছে বিএনপি সরকার।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে রেলওয়েকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ৬০টি বন্ধ রেলস্টেশন চালু করা হয়েছে।  
মন্ত্রী বলেন, সরকার রেলওয়ের উন্নয়নের জন্য সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। অচিরেই দেশের রেলপথে যুগান্তকারী পরিবর্তন আসবে।
রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম মোল্লা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন।


রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ফিরোজ সালাহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে নরসিংদী-২ আসনের সংসদ সদস্য কামরুল আশরাফ খাঁন পোটন, সা‡বক সংসদ সদস্য ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খাঁন দিলীপ, রেলওয়ের মহাপরিচালক আমজাদ হোসেন ও নরসিংদীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোজাম্মেল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
রেলমন্ত্রী, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কঠোর সমালোচনা করে বলেন, ‘খালেদা জিয়া একজন সন্ত্রাসী নেত্রী। তিনি ট্রেনে পেট্রোল বোমা মেরে যাত্রী হত্যা করেছেন। অবরোধের নামে পুলিশ ও চালককে হত্যা করেছেন। আমাদের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৃষ্টি করেন মানুষের কল্যাণের জন্য। আর বিএনপি নেত্রী শুধু ধ্বংস করে ও আগুনে পুড়িয়ে মানুষ মারে। ’ 
মন্ত্রী সরকারের রেলওয়ের উন্নয়ন পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে বলেন, সরকার রাজধানী ঢাকার চারদিকে সার্কুলার ট্রেন ব্যবস্থা প্রবর্তনের সম্ভাব্যতা যাচাই করছে। সার্কুলার ট্রেন চালু করা হলে ঢাকা শহরে যানজট থাকবে না।


মন্তব্য