kalerkantho


'বিএনপি যদি সন্ত্রাসী সংগঠন না হয়ে থাকে তাহলে প্রমাণ করতে হবে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:১৯



'বিএনপি যদি সন্ত্রাসী সংগঠন না হয়ে থাকে তাহলে প্রমাণ করতে হবে'

কানাডার আদালত বিএনপিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে অভিহিত করেছে উল্লেখ করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম বলেছেন, এদেশে কোন সন্ত্রাসী সংগঠন রাজনীতি করতে পারবে কী না, দেশবাসীকে তা ভেবে দেখতে হবে। আজ শুক্রবার চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভায় বিদ্যুতের নবনির্মিত ২৫ কিলোমিটার লাইন উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

মায়া বলেন, কানাডার আদালত বিএনপিকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে অভিহিত করেছেন। জাতি হিসেবে এটি আমাদের জন্য লজ্জা ও ঘৃণার। এতে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বিএনপি যদি সন্ত্রাসী সংগঠন না হয়ে থাকে তাহলে কানাডার আদালতে নিজেদের গণতান্ত্রিক দল হিসেবে প্রমাণ করতে হবে।

২০১৮ সালের মধ্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দেওয়া হবে উল্লেখ করে ত্রাণমন্ত্রী বলেন, পৌরসভার এ নবনির্মিত ২৫ কিলোমিটার লাইনের মাধ্যমে প্রায় ২ হাজার গ্রাহক বিদ্যুৎ সুবিধা পাবেন। ২০২১ সালের মধ্যে ১৮ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দেশে উৎপাদন হবে বলেও  জানান তিনি।

তিনি বলেন, সৌর প্যানেলের মাধ্যমে অতিরিক্ত ২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের যে আন্তর্জাতিক অঙ্গীকার রয়েছে, সেটিও পূরণ করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অংশ হিসেবে ইতিমধ্যে ২ লাখ সৌর প্যানেল স্থাপন করেছে।

চলমান অর্থবছরে আরও ৩ লাখ সৌর প্যানেল স্থাপন করা হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, যেখানে লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ দেওয়া সম্ভব হবে না, সেখানেই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সৌর প্যানেল স্থাপন করা হবে।

 

টেকসই দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও প্রতিঘরে বিদ্যুৎ দেওয়ার পরিকল্পনা থেকে এ সৌর প্যানেল স্থাপন করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

মায়া বলেন, ২০০৬ সালে বিএনপি-জায়ামাত সরকার ৩ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রেখে ক্ষমতা ছেড়েছিল। দিনে ২০ ঘন্টা লোডসেডিং লেগে থাকতো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদুর প্রসারী ও বহুমুখী পরিকল্পনার কারণে আজ ১৬ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদিত হচ্ছে। এর ফলে জেলা-উপজেলায় বর্তমানে হাজার হাজার কল-কারখানা গড়ে উঠছে।

পৌরসভার মায়া বীরবিক্রম মিলনায়তনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে উপজেলা চেয়ারম্যান মনজুর আহমেদ মঞ্জু, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম ইমন, পৌর মেয়র রফিকুল আলম জজ, প্যানেল মেয়র রুহুল আমিন, যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা সাজেদুল হোসেন দীপু চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য