kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যুদ্ধাপরাধী পাপীষ্ঠদের জন্য মায়া কান্না করে লাভ নেই : শাজাহান খান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২০:২৫



যুদ্ধাপরাধী পাপীষ্ঠদের জন্য মায়া কান্না করে লাভ নেই : শাজাহান খান

নৌ পরিবহন মন্ত্রী ও আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণ-বিচার আন্দোলনের কমিটির আহবায়ক শাজাহান খান বলেছেন, যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায় কার্যকরের মধ্য দিয়ে জাতি কলঙ্কমুক্ত হয়েছে।
আসন্ন ঈদ-উল আযহাকে সামনে রেখে আজ রবিবার বরিশাল নগরীর বান্ধ রোড নৌ-নিরাপত্তার বিষয়ে বরিশাল কেন্দ্রিয় নৌ-বন্দর এলাকা পরিদর্শনকালে শাজাহান খান সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।


নৌ-পরিবহন মন্ত্রী বলেন, ‘পাপ কোন দিন চাঁপা থাকে না। পাপীষ্ঠদের জন্য মায়া কান্না করে লাভ নেই। ১৯৭১ সালে ধর্ষণ ও মানুষ হত্যা করে তারা যে পাপ করেছে তা ক্ষমার অযোগ্য। এ জন্য মীর কাসেম আলীসহ অন্য যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি হয়েছে। একই সাথে জাতি কলঙ্কমুক্ত হয়েছে। ’
শাজাহান খান আরও বলেন, ‘দেশে যুদ্ধাপরাধীদের যেমন বিচার হচ্ছে, ঠিক তেমনি জঙ্গিদেরও বিচার হবে। জঙ্গিদের ব্যাপারেও কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবে না। যুদ্ধাপরাধীরা যে অপরাধ করেছিলো জঙ্গিরাও সেই একই অপরাধ করছে। এরা ধর্মের নামে সাধারণ মানুষকে হত্যা করছে। এতে জঙ্গিরা বেহেস্তে নয়, দোযখে যাবে’।  
‘আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে জঙ্গিদের নিহত হওয়ার ঘটনায় বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার প্রশ্ন তোলার বিষয়ে’ নৌ-পরিবহন মন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গিবাদ নির্মূল করার প্রশ্নে কোন সহানুভূতির জায়গা নেই। বর্তমান সরকার জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও জঙ্গিবাদ দমনে সরকারের অবস্থান দৃড়। কেউ যদি দরদ দেখায় তাতে কোন লাভ নেই। ’
মন্ত্রী বলেন, দক্ষিণাঞ্চলের কয়েক লাখ মানুষ পরিবার পরিজন নিয়ে ঈদে নৌ-পথে যাতায়াত করে। তাই নৌ-পথে যাত্রীদের নিরাপত্তা ও দুর্ঘটনা রোধে ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়, লঞ্চ মালিক ও শ্রমিকদের সাথে বৈঠক করে সবাইকে নৌ-দূর্ঘটনা রোধ এবং যাত্রীদের নিরাপত্তা বিষয়ে বিভিন্ন নির্দেশনামূলক প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন।  
নৌ-বন্দর এলাকা পরিদর্শনের সময় মন্ত্রীর সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক ড. গাজী মো. সাইফুজ্জামান, বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান, বিআইডব্লিউটিসি’র সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক সৈয়দ আবুল কালাম আজাদ, মেট্রো-পলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) আব্দুর রউফ প্রমুখসহ জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।


মন্তব্য