kalerkantho


দ্রুত নির্বাচনের জন্য সংলাপে বসুন : ফখরুল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩১ মার্চ, ২০১৬ ১৬:০১



দ্রুত নির্বাচনের জন্য সংলাপে বসুন : ফখরুল

দেশে চলমান রাজনৈতিক সংকট থেকে উত্তরণে দ্রুত অংশগ্রহণমূলক ও সর্বজনগ্রাহ্য জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য খালেদা জিয়ার সঙ্গে সংলাপে বসতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দীর্ঘ পাঁচ বছরের অপেক্ষার পর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব থেকে মহাসচিবের দায়িত্ব পাওয়া ফখরুল আজ বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রথম গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এই আহ্বান জানান।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, সমস্ত প্রতিহিংসা বাদ দিয়ে, সমস্ত নির্যাতন-নিপীড়ন বাদ দিয়ে আপনারা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আহ্বানে সাড়া দিয়ে আলোচনার মধ্য দিয়ে অতি দ্রুত একটি নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন, যেটা অবাধ ও সুষ্ঠু হবে, সকলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে হবে, সকলের কাছে যেটা গ্রহণযোগ্য হবে। ওই ধরনের অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দেশে যে রাজনৈতিক সংকট চলছে, তার অবসান করে বাংলাদেশকে আমরা আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।

সংবাদ সম্মেলনে নাশকতার মামলায় খালেদা জিয়াসহ ২৮ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির সমালোচনা করেন মির্জা ফখরুল। এই মামলাটি মিথ্যা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। ওই সময়ে দেশনেত্রী অবরুদ্ধ ছিলেন। সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছিল। এমনকি খাবার পর্যন্ত প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। উদ্দেশ্য একটাই- হেয় করা, হয়রানি করা। অবিলম্বে বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই, এভাবে দমন-পীড়ন করে বেগম খালেদা জিয়াকে দাবিয়ে রাখা যাবে না। অতীতেও কোনো নির্যাতনের কাছে তিনি নতি স্বীকার করেননি। বিএনপির নেতাকর্মীরা নতি স্বীকার করবে না। কারণ আমরা গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করছি, ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য সংগ্রাম করছি না। সরকার গণবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, এ জন্যই তারা মিথ্যা মামলা দিয়ে, খুন করে, গুম করে, নির্যাতন করে জনগণের গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে স্তব্ধ করে দিতে চায়, দমন করতে চায়।

 


মন্তব্য