kalerkantho


দেশে সন্ত্রাসমুখর নির্বাচন হচ্ছে : নোমান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ মার্চ, ২০১৬ ১৪:৫৮



দেশে সন্ত্রাসমুখর নির্বাচন হচ্ছে : নোমান

ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম দফার নির্বাচন সন্ত্রাসমুখর হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান। তিনি বলেছেন, সরকারের আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন দেশের নির্বাচনী ব্যবস্থাকে 'অকার্য্কর করে ফেলার ষড়যন্ত্র' করছে।

শুক্রবার দুপুরে এক আলোচনা সভায় নোমান বলেন, ''সন্ত্রাসমুখর একটা নির্বাচন দেশে হচ্ছে। এতে সন্ত্রাসীরা অংশগ্রহণ করছে। যারা ভোটার তারা এই নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করতে পারছেন না। কেন্দ্রের আশপাশেও যেতে পারছেন না। কেউ সাহস করে গেলে বা আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী অংশ গেলে তারা সেখানে গুলি খেয়ে মৃত্যুবরণ করছে। ''

মঙ্গলবার সারা দেশের ৭১২টি ইউনিয়ন পরিষদের এই ভোট ঘিরে এ পর্যন্ত অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। প্রথম দফার ভোটে যে ৬২৯টি ইউপির ফল প্রকাশ করা হয়েছে, তার মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা ৪৬৯টিতে এবং ৪৯টিতে বিএনপির প্রার্থীরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

১০৭ ইউপিতে জয় পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা, যাদের অধিকাংশই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী।
মঙ্গলবারের ওই ভোট নিয়ে আওয়ামী লীগ সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও বিএনপি বলেছে, নির্বাচনের নামে তামাশা হয়েছে।

নোমান বলেন, ''আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন গোটা নির্বাচনী ব্যবস্থাকে অকার্য্কর করে ফেলার ষড়যন্ত্র করছে। এটা তারা করেই যাবে। ''

জাতীয় প্রেসক্লাবে ইয়ুথ ফোরামের উদ্যোগে 'ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতা : নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা' শীর্ষক এই আলোচনায় আবারও বর্তমান ইসির অপসারণ দাবি করেন এই বিএনপি নেতা।

তিনি বলেন, ''এই কমিশনের পরোক্ষ মেসেজ হলো- তোমরা ভোট কেন্দ্রে যেও না। কেন্দ্রে গেলে ভোটটা তুমি দিতে পারবে না। আর যদি ভোট দিতে পারো, সেই ভোট কাউন্ট হবে না। কাউন্ট যেটা হবে সেটা সরকারের ইচ্ছা অনুযায়ী। ... তোমার জন্য সেই ব্যালট একটা কাগজ ছাড়া আর কিছু হবে না। ''

ইউপি নির্বাচনে সহিংসতা ও প্রাণহানির দায় সরকার ও নির্বাচন কমিশনকেই নিতে হবে বলে মন্তব্য করেন নোমান।

ইয়ুথ ফোরামের উপদেষ্টা মো. আতিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) আহসান হাবিব লিংকন, স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের রহমাতুল্লাহ আলোচনা সভায় বক্তব্য্য দেন।


মন্তব্য