kalerkantho


সংলাপের আহ্বান জানালেন খালেদা জিয়া

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৫৯



সংলাপের আহ্বান জানালেন খালেদা জিয়া

সকলের অংশগ্রহণে দেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সরকারের প্রতি আবারো সংলাপের আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি বলেছেন, দেশে ক্ষমতায় থাকা এবং না থাকা এখন বেহেস্ত ও দোজখের মতো বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

যারা ক্ষমতায় থাকে তারা সুবিধা ভোগ করে আর যারা ক্ষমতার বাহিরে তারা শুধু নির্যাতনই পায়। আজ শনিবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট অব বাংলাদেশ মিলনায়তনে বিএনপির ষষ্ঠ কাউন্সিলে বক্তব্যে খালেদা জিয়া এ আহ্বান জানান।

খালেদা জিয়া বলেন, বাংলাদেশের মানুষসহ প্রায় সবাই দেশে একটি গণতান্ত্রিক ও জনপ্রতিনিধিত্বশীল সরকার দেখতে চায়। এমন একটি সরকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কীভাবে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে একটি সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনের আয়োজন করা যায় সে জন্য আমরা সরকারের প্রতি সংলাপের আহ্বান জানিয়েছিলাম। কিন্তু সরকার আমাদের আহ্বানে সাড়া দেয়নি। তিনি বলেন, সকলে মিলে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সংকটের নিরসন করতে পারলে আর আন্দোলনের প্রয়োজন হবে না। কিন্তু, সরকার বলপ্রয়োগের মাধ্যমে ক্ষমতায় টিকে থাকার চেষ্টা করছে। তারা শুভবুদ্ধির পরিচয় দেয়নি।

তাই, আমরা আবারো সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, আসুন আমরা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ উপায়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানের পথ খুঁজে বের করি।

বিএনপি নেত্রী বলেন, ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য সংলাপ চাচ্ছি না। এ দেশের দেশের মালিক জনগণ। তাদের জন্য সংলাপ চাচ্ছি। দেশের মানুষের জন্য কিছু দিতেই সংলাপের আহ্বান জানচ্ছি। সার্বিকভাবে দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় সংলাপ চাচ্ছি।

খালেদা জিয়া বলেন, সংলাপের মাধ্যমে সমঝোতার পথ নিতে হবে। গণতন্ত্র রক্ষায় সব দলের অংশগ্রহণে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই। বক্তব্যে তিনি বলেন, জনগণকে জেগে উঠতে হবে। ক্ষমতায় গেলে প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানকে দুর্নীতিমুক্ত রাখার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। পৌনে ১টা থেকে শুরু হওয়া প্রায় এক ঘণ্টা ১২ মিনিটের বক্তব্যের শেষে তিনি কাউন্সিলের উদ্বোধনী পর্বের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।


মন্তব্য